মেইন ম্যেনু

জেনে নিন, “নকল” বন্ধুকে কীভাবে চিনবেন

সত্যি কথা বলতে কি, এই জীবনে বন্ধু চিনতে আমরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভুল করি। ভুল মানুষদেরকে আপন ভেবে নিই জীবনে, তারপর প্রতারণা ও ক্ষতির স্বীকার হয়ে নিজেই পস্তাই। একবার বিপদে পড়ার পর আর কিছুই করার থাকে না। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, কীভাবে চিনবেন নকল বন্ধুকে? কীভাবে বুঝবেন যে যাকে আপন ভেবে পাশে রেখেছেন, সেই- ই আপনার ক্ষতির কারণ হবে? আছে কিছু নিশ্চিত লক্ষণ। জেনে নিন…

১) সবসময় কি আপনিই বন্ধুদের জন্য এটা-সেটা করতেই থাকেন? আপনিই খাওয়ান, আপনি বেড়াতে নিয়ে যান, আপনিই তাঁর প্রয়োজনের সময় পাশে থাকেন? উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, তাহলে আপনি আছেন নকল বন্ধুত্বে।

২) কখনো মনোমালিন্য বা ভুল বোঝাবুঝি হলে কি আপনাকেই আগ বাড়িয়ে সমাধান করতে হয়? আপনি হাত নয়া বাড়ানো পর্যন্ত কি তিনি এগিয়ে আসেন না? জেনে রাখুন, সত্যিকারের বন্ধুত্বে এমন ইগো সমস্যা থাকে না।

৩) এমনিতে সম্পর্ক সাধারণ হলেও প্রয়োজনের সময় তাঁদের ব্যবহার হুট করেই খুব ভালো হয়ে যায়, এমন বন্ধুত্ব থেকে দূরে থাকুন।

৪) বন্ধুকে মানুষ সাহায্য করবেই। কিন্তু সেই সাহায্য যদি প্রায়ই করতে হয়, তাহলে জানবেন বন্ধুত্বে আছে সমস্যা।

৫) আপনার বন্ধু কি প্রায়ই আপনাকে বলতে থাকেন যে “অমুকে এটা বলেছে, তমুকে সেটা বলেছে?” এমন বন্ধু হতে যত দ্রুত সম্ভব নিজেকে সরিয়ে নিন। অন্য কেউ তাঁর কাছে আপনার নামে বদনাম করার পরও সে সেটা শুনেছে, এর অর্থ সহজেই অনুমেয়।

৬) বন্ধুর উপকার করতে গিয়ে প্রায়ই কি বিপদে পড়েন আপনি? জেনে রাখুন, এই বন্ধুত্ব মিথ্যা। সত্যিকারের বন্ধু কখনো আরেকজনকে বিপদে ফেলেন না।

৭) আপনার বিপদের সময় কি বন্ধুকে কাছে পান? নাকি এটা-ওটা বাহানায় তিনি আজীবন ব্যস্তই থাকেন? উত্তর যদি পজেটিভ না হয়, তবে এমন বন্ধুত্ব থেকে সরে আসাই উত্তম।

৮) আপনার নিজেরই কি মনে হয় বন্ধু আপনাকে ব্যবহার করছে? উত্তর হ্যাঁ হলে নিজেই বুঝে নিন।