মেইন ম্যেনু

জেনে নিন ব্রণ দূর করার ৫টি উপায়

গ্রীষ্মকালে মুখে ব্রণ বের হওয়া একটি সাধারণ বিষয়। চিকিৎসকদের মতে, এই সময়ে অতিরিক্ত ঘামের ফলে এর উপদ্রব ঘটে। ত্বক বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নিখিল বিশ্বাস বলেন, গ্রীষ্মকালে যদি ত্বক পরিষ্কার করা না হয়, তাহলে মুখে ব্রণ ও খোঁসপাঁচড়ার সংক্রমণ ঘটে। যা সৌন্দর্য্যহানি ঘটায়। এতে কর্মক্ষেত্রে নিজের ইমেজে বিরুপ প্রভাব পড়ে। তাই এই সময়ে ত্বকের প্রতি বেশ যত্নশীল হতে হয়।

সকালে মুখ ধোয়ার আগে এতে লাল চন্দনের লেপ লাগান। এটি মুখের ঔজ্জ্বলতা বৃদ্ধির সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে ব্রণ দূর করতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।গ্রীষ্মকালে মুখের ত্বক পরিষ্কার রাখার কিছু সহজ উপায় তুলে ধরা হলো যা ব্রণ থেকে সহায়ক :

১. গ্রীষ্মকালে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন। এটি ত্বক আর্দ্র রাখতে সহায়তা করে। শুধু তাই নয়, পানি পানের ফলে শরীরের বিষাক্ত বর্জ্যও বের হয়ে যায়। পারলে নিম অথবা তুলসী পাতার রস খান। পেট পরিষ্কার রাখতে এর চেয়ে মোক্ষম ওষুধ আর নেই।

২. সকালে মুখ ধোয়ার আগে এতে লাল চন্দনের লেপ লাগান। এটি মুখের ঔজ্জ্বলতা বৃদ্ধির সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে ব্রণ দূর করতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।

৩. সকালে দাঁত ব্রাশ করার আগে মহিষের কাঁচা দুধ (ফুটান যাবে না) পান করুন। প্রাচীন চিকিৎসা মতে, মহিষের দুধে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-ব্যাক্টেরিয়াল উপাদান। যা ব্রণের প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে।

৪. রাতে শোয়ার আগে ত্বকে টোনার (এক ধরনের পাউডার) ব্যবহার করুন। টোনার-এ প্রচুর পরিমাণে গোলাপ জল অথবা অ্যালোভেরা থাকে। এসব উপাদান ব্রণ দূর করে। এগুলো ত্বকের মেছতা ও কালো দাগ দূর করতেও সহায়তা করে।

৫. ত্বকে কখনোই সাবান ব্যবহার করবেন না। এর পরিবর্তে প্রাকৃতিক উপাদানসমৃদ্ধ নিম পেস্ট অথবা মুলতানি মিতি দিয়ে মুখ ধোয়ার চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন, যত কসমেটিকস ব্যবহার করবেন, ততই মুখে ব্রণ দেখা দিবে।