মেইন ম্যেনু

জেনে নিন সোনাক্ষীর যত অজানা কথা….

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির ‘সেলফি কুইন’ সোনাক্ষী সিনহা। সালমান খানের হাত ধরে ‘দাবাং’ সিনেমার সাধ্যমে রুপালী জগতে আগমন তার। আজ বলিউডের ‘দাবাং গার্ল’ সম্পর্কে এমন কিছু তথ্য জানবেন, যা অজানা ছিল ভক্ত দর্শকদের কাছে।

১) স্কুল শেষ করার পর ফ্যাশন ডিজাইনিং নিয়ে পড়াশোনা করেন মুম্বাইয়ের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে।

২) গ্রাজুয়েশন শেষ করার পর কস্টিউম ডিজাইনার হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন সোনাক্ষী।

৩) ২০০৫ সালে ‘মেরা দিল লেকে দেখো’ নামে একটি সিনেমায় কস্টিউম ডিজাইনিং করেন শত্রুঘ্ন কন্যা।

৪) ২০১০ সালে ‘দাবাং’ ছবিতে প্রস্তাব পাওয়ার পর প্রায় ৩০ কেজি ওজন কমিয়েছিলেন সোনাক্ষী। আর প্রথম সিনেমাতেই দর্শকদের মন জয় করে নেন তিনি। আর তারপর থেকেই বলিউডের ‘দাবাং গার্ল’ হিসেবে পরিচিতি পান সোনাক্ষী।

৫) থাই এবং চাইনিজ খাবার পছন্দ তার।

৬) ফটোগ্রাফিও জানেন তিনি। নাচও তার অন্যতম প্রিয় বিষয়।

৭) পশু প্রেমী হিসেবে সোনাক্ষীর বেশ নামডাক আছে। কুকুর এবং বিড়াল সংরক্ষণে বেশ কিছু প্রশংসনীয় কাজও ইতিমধ্যে করে ফেলেছেন সোনাক্ষী।

৮) অর্জুন কাপুরের সঙ্গে সোনাক্ষীর সম্পর্কের কথা বি টাউনে বেশ আলোচিত হলেও বর্তমানে অর্জুনের সঙ্গে মুখ দেখাদেখিও বন্ধ তার। ফলে, সোনম কাপুরের সঙ্গে সম্পর্কেও সেই প্রভাব কিছুটা পড়েছে। তাই, এককালের প্রিয় বন্ধু সোনমকেও এখন বেশ কিছুটা এড়িয়েই চলেন সোনাক্ষী।

৯) সোনাক্ষীর ক্যারিয়ারে সালমান খানের ভূমিকা অনেক বেশি।

১০) একসময় শহীদ কাপুরের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে বেশ গুঞ্জন শোনা যায় বলিউডে। প্রভুদেবার ‘আর রাজকুমার’ ছবিতে অভিনয়ের সময় ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি হয় সোনাক্ষী ও শহীদের মধ্যে।

১১) হলিউডের দুটি অ্যানিমেশন সিনেমার হিন্দি ভার্সনে কণ্ঠ দেন সোনাক্ষী। ছবির নাম ‘রিও’, ‘রাইজ অব দ্য গার্ডিয়ান’।

১২) শাড়ি পরতে ভালোবাসেন তিনি। তার পছন্দের রঙ হলুদ এবং সবুজ।

১৩) মডেলিংয়ের মাধ্যমে বি টাউনে প্রবেশ করেন তিনি। ২০০৮ ও ২০০৯ সালে ল্যাকমে ফ্যাশন উইকে র্যাংম্পে হাঁটেন তিনি।

১৪) তারকা সন্তান হওয়া সত্ত্বেও তিনি সাধারণ জীবনযাপন করেন। সোনাক্ষী ট্রেন এবং অটোতে চলাফেরা করেন।

১৫) বলিউডে একমাত্র নায়িকা ক্যাটরিনা কাইফের অন্ধ ভক্ত তিনি।