মেইন ম্যেনু

জেনে শুনেই ১৭৭ ফুটের একটি বিমান সমুদ্রগর্ভে ডুবিয়ে দেয়া হলো!

একটি ১৭৭ ফুটের বিমান সমুদ্রগর্ভে ডুবিয়ে দেয়া হয়েছে। না, এটি কোনো দুর্ঘটনা নয়। পুরোটাই পরিকল্পনা মাফিক। সম্প্রতি এমনই বিরল দৃশ্য দেখা গেল তুরস্কে। গল্পের গরু গাছে তো ওঠে। কিন্তু, বিমান পানিতে ডোবে কীভেব? ডোবে আলবাত ডোবে। গল্পে নয় বাস্তবে। এই যেমন ডুবল।

না, ঘাবড়াবেন না। কারণ এটি কোনো দুর্ঘটনা নয়। তুরস্কে ১৭৭ ফুটের একটি বিমান ডুবিয়ে দেয়া হলো। আর বিমানটিকে ডুবিয়ে দেয়ার উদ্দেশ্যে ছিল বিদেশি পর্যটক ও ডাইভারদের কাছে তুরস্কের আকর্ষণ আরো বাড়িয়ে তোলা।

সামুদ্রিক নানা অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টসে খ্যাতি রয়েছে তুরস্কের। সি ডাইভারদের হট ফেবারিট কুসাদাসি। কিন্ত, কয়েকমাস ধরে আকর্ষণ হারাচ্ছিল। ডাইভারদের কাছে জনপ্রিয় করতে বিমান ডোবানোর সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষের। বেসরকারি একটি সংস্থার কাছ থেকে ৩৬ বছরের পুরনো একটি বিমান কিনে নেয় আয়ডিন পুরকর্তৃপক্ষ।

পানির মধ্যে ডুবে থাকা এয়াবাসটি এবার থেকে কৃত্রিম রিফ হিসাবে কাজ করবে। এরমধ্যেই বাসা বাঁধবে সামুদ্রিক প্রাণী। যার টানে ছুটে আসবেন কৃত্রিম ডাইভাররা। অন্তত তেমনটা করছে কর্তৃপক্ষ।

এতবড় বিমানটি পানিতে ডুবানোর বিরল মুহূতর্তের সাক্ষী থাকতে হাজির হয়ে ছিলেন অসংখ্য মানুষ।-জিনিউজ