মেইন ম্যেনু

জ্বালা টের পাচ্ছে ইংল্যান্ডও!

পাকিস্তান, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ হেরে গেছে। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ অমন ভুলটা না করলে ইংল্যান্ডও এতক্ষণে সিরিজ হারের স্বাদ পেয়েই যেত। সিরিজে ১-১ সমতা থাকলেও প্রথম দুই ম্যাচেই ইংল্যান্ড বুঝে গেছে, বাংলাদেশ এখন বিশ্বের যেকোনো দলের সামর্থ্যের চূড়ান্ত পরীক্ষাই নেয়।

গত ম্যাচের পর দুই দলের মধ্যে ঘটে যাওয়া কিছু অপ্রত্যাশিত ঘটনা নিয়েই কথাবার্তা হচ্ছে বেশি। আলোচনায় ক্রিকেট জায়গা পাচ্ছে কমই। এ নিয়ে ইংল্যান্ড কোচ ট্রেভর বেলিসকেও অনেক শব্দ খরচ করতে হলো। তবে বেলিস এই বলেও সতর্ক করছেন, ‘দ্রুতই খেলায় মনোযোগ ফেরানো জরুরি।’

ম্যাচটাকে ফাইনাল হিসেবেই দেখছেন ইংল্যান্ড কোচ। এ কারণে তিনি আরও বেশি সতর্ক, ‘এটা ভাগ্য নির্ধারণী ম্যাচ। গত ম্যাচের ওই অপ্রত্যাশিত ঘটনা খুব বেশি প্রভাব ফেলবে না বলেই আমি মনে করি। তারা সবাই পেশাদার খেলোয়াড়। প্রত্যেকে এমন ঘটনার ভেতর দিয়ে আগেও গেছে। কেউ যদি এমন ঘটনায় আটকে পড়ে থাকে, তাহলে তা হবে প্রতিপক্ষকে বাড়তি সুবিধাই এনে দেওয়া।’

প্রথম দুই ওয়ানডে থেকে বেলিসের একটা শিক্ষাও হয়েছে, ‘প্রথম দুই ম্যাচের শিক্ষাটা হলো, বাংলাদেশকে এখন আর সহজে বশ করা যাবে না। ওদের দলটা দুর্দান্ত। নিজেদের হোম কন্ডিশনের জন্য দারুণ একটা বোলিং আক্রমণও আছে। গত এক-দেড় বছরে কিন্তু অনেক দলই এখানে এসে বুঝে গেছে বাংলাদেশ সেই আগের দল নেই। এখন থেকে ভবিষ্যতে আরও অনেক দলও বাংলাদেশের বিপক্ষে কীভাবে খেলা উচিত তা নতুন করে ভাববে।’