মেইন ম্যেনু

ঝগড়ার পরে যা করবেন না

দুজন মানুষ একসঙ্গে থাকলে ঝগড়া হবেই। সেটা ছোটখাটো বিষয় নিয়েও হতে পারে, আবার বড় কোনো ঘটনা নিয়েও হতে পারে। ঝগড়া হবে আবার মিটমাট হবে, এটাই স্বাভাবিক। তবে ঝগড়া করার পর কিছু জিনিস না করাই ভালো। জানতে চান, সেগুলো কী কী? তাহলে ফ্যামিলি শেয়ার ওয়েবসাইটের এই তালিকা একবার দেখে নিতে পারেন। পরামর্শগুলো আপনার কাজে লাগবে।

১. নিজেদের ঝগড়ার কথা সবাইকে বলে বেড়াবেন না। পরিবার, আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবকে ঝগড়ার কথা বললে এটি আরো ভয়াবহ রূপ নিতে পারে। তাই ঝগড়ার কথা কারো কাছে প্রকাশ করবেন না।

২. ঝগড়া মিটিয়ে নিতে অনেক বেশি সময় নেবেন না। যত দ্রুত সম্ভব ঝগড়া মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করুন। দুজনই যদি বিষয়টি মনে ধরে বসে থাকেন, তাহলে কোনোভাবেই এ সমস্যার সমাধান হবে না। তাই নিজেদের সুখের জন্য নিজেরাই বিষয়টি সামলে নিন।

৩. রাগ বেশিক্ষণ জমিয়ে রাখবেন না। এতে সম্পর্কে তিক্ততা চলে আসবে। মনে মনে ভাবুন, যে মানুষটির ওপর আপনি রাগ করে বসে আছেন, তাঁকে আপনি কতটা ভালোবাসেন। দেখবেন, রাগ এক নিমেষেই দূর হয়ে যাবে।

৪. অনেকেই একবার ঝগড়া হলে সেটা সহজে ভুলতে পারেন না। এটা খুবই খারাপ অভ্যাস। ঝগড়ার বিষয়টি ভুলে যাওয়ার চেষ্টা করুন। ঝগড়া শেষ হওয়ার পরও যদি খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে আপনি সেই বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন, তাহলে এটা কোনোভাবেই শেষ হবে না।

৫. একে অন্যের কাছে মাফ না চাওয়া। ঝগড়া হলে কোনোভাবেই একে অন্যের কাছে দম্পতিরা মাফ চাইতে রাজি হন না। তাঁরা একজন আরেকজনের কাছে ছোট হতে চান না। এই ইগো সমস্যাই ঝগড়া জমিয়ে রাখে।

৬. ডিভোর্সের কথা ভুলেও বলবেন না। মনে রাখবেন, সামান্য ঝগড়া আপনাদের বিচ্ছেদের কারণ হতে পারে না। তাই এ ধরনের কথা না বলাই ভালো।