মেইন ম্যেনু

ঝাউডাঙ্গায় ‘‘মৃত্তিকা আর্ট স্কুল’’ এর পথ চলা শুরু

একরামুল কবীর, (ঝাউডাঙ্গা) সাতক্ষীরা থেকে: সাতক্ষীরা ঝাউডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ খলিলুর রহমান বলেছেন, পৃথিবীর কোন জাতীকে মাতৃভাষার জন্য জীবন উৎসর্গ করতে হয়নি। এক মাত্র বাঙ্গালী জাতীর ছাড়া। আর এ কারনে মহান শহীদ দিবস আজ আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে পৃথিবীর সব দেশ আজ গভীর শ্রর্দ্ধা ভরে স্মরণ করছে। তিনি রবিবার সকালে ঝাউডাঙ্গার ‘‘মৃত্তিকা আর্ট স্কুল’’আয়োজিত ছাত্র/ছাত্রীদের চিত্রাংকণ প্রতিযোগীতার বিজয়ীদেও মধ্যে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি তার বক্তব্যে আরো বলেন, বর্তমান শিক্ষা বন্ধব সরকার শিক্ষা ক্ষেত্রে চারুকারু ও চিত্রাংকণ বিষয়টি বাধ্যতামূলক করেছে। কিন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে এখনও পর্যন্ত চিত্রাংকণ বিষয়ে পারদর্শী কোন শিক্ষক নিয়োগ প্রদোন করা হয়নি । সে জন্য ছাত্র / ছাত্রীরা ঐ বিষয়টিতে আশানুরুপ নাম্বার পাচ্ছে না। ফলে তারা কাঙ্খিত ফলাফল করতে পারছে না। আর এ কারনে আর্ট স্কুলের কোন বিকল্প নেই। তিনি সকল প্রতিষ্ঠানের ছাত্র / ছাত্রীদেরকে ‘‘মৃত্তিকা আর্ট স্কুলে’’ ভর্তি হওয়ার জন্য আহবান জানান।

মৃত্তিকা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার পরিচালক আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন, তালা সরকারী কলেজের সাবেক উপাধ্যক্ষ বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী আব্দুর রহিম, ঝাউডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আনিছ উদ্দীন, ঝাউডাঙ্গা বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রশিদ, আর্ট সামগ্রীর প্র¯ু‘ত ও বাজার জাতকীর প্রতিষ্ঠান ‘‘ষ্টাডলার’’ এর সাতক্ষীরা সেলস্্ প্রমোশন অফিসার মেহেবুবুল ইসলাম,মৃত্তিকা আর্ট স্কুলের পরিচালক একরামুল কবীর প্রমূখ।

প্রতিযোগীতায় ঝাউডাঙ্গার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ৬০ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে। তিনটি গ্রুপে বিভক্ত প্রতিযোগীদের মধ্যে ১ম,২য় ও ৩য় স্থান অধিকারীদের মধ্যে আকর্ষনীয় পুরস্কার দেওয়া হয় । এবং অংশ গ্রহণকারী সকল প্রতিযোগীকে শান্তনা পুরস্কৃত করা হয়।

প্রধান অতিথি পুরস্তকার বিতরণ শেষে নব গঠিত মৃত্তিকা আর্ট স্কুলের আনুষ্ঠানিক ভাবে শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন।উল্লেখ মৃত্তিকা সমাজ উন্নয়ন সংস্থা স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করেছে এবং ষ্টাডলার এর সৌজন্যে প্রতিযোগীতাটি অনুষ্ঠিত হয়।