মেইন ম্যেনু

ঝাউডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত

একরামুল কবীর, ষ্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সাতক্ষীরা: ঝাউডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, সাতক্ষীরা সদর উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এস এম শওকত হোসেন বলেছেন, আমাদের আর পিছিয়ে থাকার সময় নেই,দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাচ্ছে শিক্ষা, উন্নত হচ্ছে শিক্ষার পরিবেশ।

সেই জন্য নিজেকে এবং দেশকে উন্নতির চরম শিখরে নিতে হলে উন্নত মানের শিক্ষা উপহার দিতে হবে। তিনি কলেজের শিক্ষকদের উদ্দেশ্য করে বলেন, ছাত্ররা আপনাদের সন্তানতুল্য, তাদেরকে উন্নত শিক্ষা উপহারই হবে আপনাদের একমাত্র ব্রত।

৪৬তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে ঝাউডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজ আয়োজিত ৩ দিন ব্যাপি বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

কলেজ অধ্যক্ষ খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ঐ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলা আ’লীগের সহ সভাপতি ঝাউডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক মাষ্টার আনিছ উদ্দীন,ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি রমজান আলী বিশ্বাষ, ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, বল্লী ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান বজলুর রহমান,ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য মাষ্টার আমির আলী,তুজলপুর জিসি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক ইছহাক আলী, কলেজের সহঃঅধ্যাপক আব্দুল মান্নান প্রমূখ।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে ছাত্র/ছাত্রীদের উদ্দেশ্য করে আরো বলেন,তোমার পিতার যদি ১০ বিঘা জমি থাকে, আর তোমরা যদি ৪/৫ টি ভাই বোন থাকো তাহলে ঐ জমির মধ্যে ভাগিদার তোমরা সবাই। কিন্তু তুমি যদি ভাল ভাবে লেখা পড়া শিখে একটা মান সম্মত চাকরী করো, তাহলে তার ভাগিদার হচ্ছো একমাত্র তুমি।

তিনি বলেন, অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাজনৈতিক কারনে কলেজের স্বাভাবিক লেখা পড়ার মান নষ্ট হচ্ছে। লেখা পড়ার মান উন্নত করতে হলে কলেজ ক্যাম্পাসে রাজনীতি নয়। তিনি আরো বলেন, তোমরা যদি আমাকে ভাল বাসো। বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে ভালোবাসো তাহলে ক্যাম্পাসের বাইরে রাজনীতি করতে পারো। কোন ভাবেই কলেজের ক্যাম্পানে নয়।

আলোচনা সভাশেষে প্রধান অতিথি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় অংশ কারী কৃতি ছাত্র/ছাত্রীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।

সমগ্র অনপ্রভাষক অনুষ্ঠানটি পরিচালন করেন প্রভাষক হাসান মাহমুদ রানা।