মেইন ম্যেনু

ঝড়ে ধ্বসে পড়ল সুপ্রিম কোর্টের সীমানা প্রাচীর

হঠাৎ ধমকা ঝড়ে ধ্বসে পড়ছে সুপ্রিম কোর্টের সীমানা প্রাচীর। বার কাউন্সিলের গেট থেকে সুপ্রিম কোর্টের মূলগেট পর্যন্ত সীমানা প্রাচীর ভেঙে যায়। তবে ঝড়ের সময় কেউ আহত হয়নি বলে জানা গেছে।

সীমান প্রাচীর ধসে পড়ার পরে সেখানে নিরাপত্তা জোরদার জোরদার করা হয়েছে। ধ্বসে পড়া প্রাচীরের দুই পাশে পুলিশ নিরাপত্তার দ্বায়িত্বে রয়েছে। সীমানা প্রাচীরের উপর প্রায় ৫০ থেকে ৬০ ফুট লম্বা একটি মেহগনি গাছ উপড়ে পড়ে এ সীশানা প্রাচীরিটি ভেঙ্গে যায়। গছের সঙ্গে সীমার প্রাচীরও ধ্বসে পড়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাইকোর্টের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার সাব্বির ফয়েজ বলেন, সীমানা প্রাচীর ধ্বসে পড়ার পরে আমরা তাৎক্ষনিক ইটের দেয়াল দেয়া সম্ভব না। আপাতত টিনের বেড়া দেয় (সীমানা দেয়াল) তোলা হবে। তার পরবর্তী পর্যায়ে সীমানা প্রাচীর (ইটের দেয়াল) তৈরি করা হবে।

রাজধানীতে হঠাৎ ঝড়ো হাওয়াসহ শিলা বৃষ্টি শুরু হয়।বুধবার দুপুর ১২টার দিকে হঠাৎ করেই ঝড়ো হাওয়াসহ শিলা বৃষ্টি শুরু হয়। ফাল্গুনে এই হঠাৎ বৃষ্টিতে বিপাকে পড়ে রাজধানীর পথচারীরা। বৃষ্টির পাশাপাশি বয়ে যায় দমকা হাওয়া। ধমকা হওয়াতে সুপ্রিমকোর্টের গাছের পাতা ঝড়ে পড়ে।

রাজধানীর কারওয়ান বাজার, ইস্কাটন, বাংলামোটর, ফার্মগেট, বাড্ডা, রামপুরা, মিরপুরসহ বিভিন্ন জায়গায় শিলা বৃষ্টি হয়। সুপ্রিমকোর্টের শিলা বৃষ্টির সময় আদালত থেকে আইনজীবী ও কর্মচারীরা বের হয়ে বৃষ্টি উপভোগ করেন। কেউ কেউ তার হাত বাড়িয়ে একটু বৃষ্টি ছুয়ে দেয়। আবার কেউ কেউ বরফের স্তুপের মতো জমে থাকা শিলার স্তুপ থেকে নিয়ে নিজের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে চেপে ধরে রখেন। এ সময় সুপ্রিমকোর্টের বারান্দা ও বাগানে শিলা স্তুপ জমে যায়।

এর আগে গতকাল (মঙ্গলবার) আবহাওয়া অধিদফতর এক পূর্বাভাসে জানিয়েছিল, ফরিদপুর, মাদারীপুর ও ঢাকা অঞ্চলসহ খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।জানা গেছে, বুধবার শিলাবৃষ্টিতে রাজধানীতে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।
এর মধ্যে ১৪ জনই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আমরণ অনশনে থাকা কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডা’র নেতা-কর্মী।

আহতদের কয়েকজনের নাম জানা গেছে। এরা হলেন, রেজাউল করিম, সাইফুল হক জুয়েল, প্রদীপ, সুমন মণ্ডল, সানজিদা, আকলিমা ও শিমুল খান। শহীদ মিনারে আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১৪ জন।