মেইন ম্যেনু

ঝড়ে লন্ডভন্ড ১০টি গ্রাম: স্কুলে ১৫ শিক্ষার্থী আহত

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখনে বুধবার বেলা সারে ১১ টায় প্রচন্ড ঝড়ে কেয়াইন ইউনিয়নের হাজিগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের ভবনের চালা উল্টে মাঠে ও ক্লাশ রুমে পড়ে ১৫ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। গুরুতর আহত ৮ জনকে স্থানীয় ও ঢাকার হাসপতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ৫ মিনিটের এ ঝড়ে লন্ডভন্ড হয়ে যায় উপজেলার ৪/৫টি গ্রাম, ঝড়ের সময় থেকে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে ১০টি গ্রাম।
হাজিগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ভোলা মজুমদার (১৪) কে পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নবম শ্রেণির নুসরাত (১৪), মেহেদী হাসান (১৫) ও দশম শ্রেণির অন্তু দাস (১৬) কে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া দশম শ্রেণির কাকলি (১৫), রাবেয়া (১৫), রিয়াজুল (১৬) ও ইমন (১৫) কে ঢাকা মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওনক আফরোজা সুমা জানান, আমি পরিদর্শণ করেছি। ৮ জন আহত আছে তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ডাক্তারদের একটি টিম হাজিগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

ঝড়ের পর সিরাজদিখান-নিমতলা সড়কের ইমামগঞ্জ, সিংগারটেক ও রসুনিয়া এলাকায় বড় বড় গাছ ভেঙ্গে পরায় ১ ঘন্টারও বেশি রাস্তা বন্ধ ছিল। পরে এলাকাবাসী গাছ কেটে রাস্তা পরিস্কার করে।

সিরাজদিখান পল্লি বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম দেব কুমার মালো জানান, কয়েকটি খুটি ক্ষতিগ্রস্ত, লাইনের উপর গাছ পরেছে। কয়েকটি এলাকা এখনো বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন আছে। আমরা প্রোপার এলাকাটা বিশেষ ব্যবস্থায় চালু করেছি। বাকিগুলো পর্যায়ক্রম চালু করা হবে।