মেইন ম্যেনু

টঙ্গীতে বয়লার বিস্ফোরণ, ভবন ধসে পড়ার শঙ্কা

গাজীপুর জেলার শিল্পনগরী টঙ্গীতে একটি কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণ থেকে সৃষ্ট আগুন এখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

বিস্ফোরণের পর আগুন ছড়িয়ে পড়ায় ভবনের কিছু অংশ ইতিমধ্যে ধসে পড়েছে। পুরো ভবন ধসে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এদিকে বিস্ফোরণ ও আগুনে দগ্ধ হয়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪ জনে। আহত হয়েছেন অনেকে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ২৫টি ইউনিট।

শনিবার সকাল ৬টার দিকে টঙ্গীর বিসিক শিল্প নগরীর ট্যাম্পাকো নামের একটি কারখানায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। বয়লার বিস্ফোরণের পর কারখানাটিতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এতে ভবনের একটি অংশ ধসে পড়ে।

আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতাল ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ৩০ জনকে। সেখানে মারা গেছেন আনোয়ার হোসেন (৪০), ওয়াহিদুজ্জামান তপন (৩৫), দেলোয়ার হোসেন (৪০), তাহমিনা আক্তার (২০) ও আশিক (১২)।

এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে সোলাইমান (৩০), হান্নান (৬২), ইদ্রিস (৪০), আল-মামুন (৪০), শংকর সরকার (২৫), জাহাঙ্গীর (৫০), সুবাস চন্দ্র (৪০), রফিকুল ইসলাম (২৮), রেদোয়ান (৩৫), জয়নুল (৩৬), আনোয়ার আলী (৩৫), আনিসুর রহমান (৪০), রাজেশ (২০) ও রাশেদের (২৭) মরদেহ উদ্ধার করে টঙ্গী হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ছাড়া ভবন ধসে নিহত টঙ্গীর আসমা বেগমের (২২) লাশ তার স্বামী সুমন বাড়িতে নিয়ে গেছেন। এ ছাড়া চারজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক শামীম বলেন, ‘আগুন এখনো পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। ভেতরে প্রচুর পরিমাণ কেমিক্যাল থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে বেগ পেতে হচ্ছে। ভবনের আরো অংশ ধসে পড়েছে। পুরো ভবন ধসে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।’