মেইন ম্যেনু

টানা ৬০ ঘণ্টা পর নৌযান ধর্মঘট প্রত্যাহার

৭ দফা দাবি পূরণ করার আশ্বাসে টানা ৬০ ঘণ্টা পর প্রত্যাহার করা হয়েছে বংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়নের ডাকা নৌ ধর্মঘট ।

শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে শহরের হাটলক্ষ্মিগঞ্জ এলাকায় অবস্থিত বংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়নের অস্থায়ী কার্যালয়ে জেলা সভাপতি তাইজুল ইসলাম বাদশা ধর্মঘট প্রত্যাহারে ঘোষণা দেন।

ধর্মঘট প্রত্যাহারের পরে ধলেশ্বরী, মেঘনা ও শীতলক্ষ্যা তীরে নোঙর করা হাজার হাজার বাল্কহেড ও ছোট বড় বিভিন্ন ধরনের পণ্যবাহী জাহাজ ছেড়ে যায় যার যার গন্তব্যস্থলের উদ্দেশে।

সংগঠনটির সভাপতি মো. তাইজুল ইসলাম বাদশা ও সাধারণ সম্পাদক মো. কাজী মাসুদ বলেন, সরকারে উচ্চপর্যায়ে আলোচনার মাধ্যমে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। তারা আশ্বাস দিয়েছেন আমাদের ৭ দফা দাবি পূরণ করা হবে এবং নৌপথে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মুক্তারপুর নৌফাঁড়ি ইনচার্জ মো. ইউনুছ বলেন, বালুমহালের লোকজন নদীপথে টোকেন কাটতে পারবে না এবং নৌ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারে আশ্বাস দেওয়ার পর তারা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়েছে। তবে নদীতে পুলিশি টহল অব্যাহত রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে মেঘনা নদীতে চরকিশোরগঞ্জ এলাকার রিফাত ট্রেডার্সের মালিক ইমাম হোসেনের সন্ত্রাসী বাহীনির লোকজনের হামলায় ৬ নৌযান শ্রমিক গুরুতর আহত হন। এদিন রাত সাড়ে ১২টায় ধর্মঘটের ডাক দেয় বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়ন।