মেইন ম্যেনু

টিআইবি বিএনপির অঙ্গ সংগঠন

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশকে (টিআইবি) বিএনপির অঙ্গ সংগঠন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রবীন নেতা বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ কক্ষে ঢাকায় নবনিযুক্ত শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রদূত ইয়াসোজা গুনাসেকেরা সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

‘সকল সমস্যা সমাধানের একমাত্র পথ নির্বাচন’ টিআইবির এ ধরনের মন্তব্য করা ঠিক হয়নি জানিয়ে তোফায়েল বলেন, ‘টিআইবি রাজনৈতিক সংগঠন নয়, তবু তারা নির্বাচন দাবি করেছে। টিআইবি নির্বাচন চাওয়ার কে? এটা তারা পারে না। যেখানে বারাক ওবামা বাংলাদেশের প্রশংসা করে, সেখানে টিআইবি দেশের ভালো কিছু দেখে না।’

তিনি বলেন, ‘সংসদে এখন বিরোধী দল আসে, আগে আসতো না। এটা টিআইবির চোখে পড়ে না। অথচ তারা কোরাম সঙ্কট দেখলো।’

সংসদে কোনো কোরাম সঙ্কট নেই বলে দাবি করে তোফায়েল বলেন, ‘টিআইবি এ সংসদে কোরাম সঙ্কটের বিষয়ে যে তথ্য দিয়েছে তা একেবারে অসত্য।’

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘টিআইবির আগের কাজের ধরন, আর এখনকার কাজের ধরনের পার্থক্য এসেছে। তারা আগে নির্বাচনের কথা বলতো না, এখন তারা বলে। এতে বোঝা যায় তারা কাদের পক্ষে কথা বলে।’

টিআইবি বিএনপির অঙ্গ সংগঠন বলে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এরা কখনোই বাংলাদেশের প্রশংসা করেনি?’

বিদেশি হত্যা, রেড অ্যালার্ট, হোসনি দালানে হামলাসহ সাম্প্রতিক ঘটনাগুলো নিয়ে সরকার মোটেই বিচলিত নয় দাবি করে তোফায়েল বলেন, ‘আমরা বরং মানসিকভাবে আরো শক্তিশালী হয়েছি। কারণ অপরাধীরা ধরা পড়েছে। এখন নেপথ্যের নায়করা চিহ্নিত হবে।’

প্রচার বেশি পেতে ও রেড অ্যালার্ট জারির পরিস্থিতি তৈরি করতেই বিদেশি হত্যার ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে দাবি করেন তোফায়েল আহমেদ।