মেইন ম্যেনু

টেকনাফে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৫ পালিত

‘সাগর-নদী সকল জলে-মাছ চাষে সোনা ফলে’ প্রতিপাদ্য নিয়ে র্যালী, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও পোনা অবমুক্ত করণের মাধ্যমে টেকনাফে ২৮ জুলাই জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ শুরু হয়েছে। টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ মোজাহিদ উদ্দিনের নেতৃত্বে র্যালী শেষে আনুষ্টানিক উদ্বোধনী সভা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ মোজাহিদ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত হয়।

এতে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওঃ রফিক উদ্দিন, টেকনাফস্থ প্রদর্শণী চিংড়ি খামার ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (ডিএফটিসি) সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান, টেকনাফ স্থল বন্দরের ফিশারীজ কোয়ারেন্টাইন অফিসার আরাফাত উদ্দিন, বাংলাদেশ কোস্টগার্ড বাহিনী টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লেঃ কমান্ডার এমএএসএইচ চৌধুরী, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ আবদুল লতিফ, সমাজ সেবা অফিসার মোঃ সিরাজ উদ্দিন, একাডেমিক সুপারভাইজার মোঃ নুরুল আবছার।

স্বাগত বক্তব্য দেন ও অনুষ্টান সঞ্চালনা করেন টেকনাফ সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার ছৈয়দ হুমায়ুন মোরশেদ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সোনার তরী বোট মালিক সমিতির সেক্রেটারী আবদুস সালাম, নাইট্যংপাড়ার মোঃ ইব্রাহীম। সভায় শ্রেষ্ট চিংড়ি উৎপাদনকারী হিসাবে কাঞ্জরপাড়া চিংড়ি চাষী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আব্বাস উদ্দিন সওদাগর এবং শ্রেষ্ট মাছ উৎপাদনকারী হিসাবে জাদীমুরার জুলফিকার আলী ভুট্রোকে পুরস্কৃত করা হয়।

অতিথিগণ তাঁদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। এরপর টেকনাফ উপজেলা পরিষদের পুকুরে রুই-কাতলা জাতীয় মাছের ২ হাজার পোনা আনুষ্টানিকভাবে অবমুক্ত করে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৫ আনুষ্টানিক উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। এতে সরকারী কর্মকর্তা, মৎস্যজীবি, মৎস্য চাষী, চিংড়ি চাষী, মিডিয়াকর্মী, এনজিও প্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রহণ করেন।