মেইন ম্যেনু

ট্রেনের সামনে ছোট্ট বাচ্চাগুলো একি করলো? (হার্ড দুর্বল ব্যক্তিরা ভিডিওটি দেখবেন না)

বলিউড, হলিউড, ঢালিউড অ্যাকশন মুভির কদর সর্বত্রই। কিন্তু দুঃসাহসিক সেই দৃশ্যগলোতে ব্যবহার করা হয় কিছু স্টান্ট, আবার কোথায়ও ক্যামেরার কারসাজি। কিন্তু ভাবুন তো সেই অ্যাকশনই যখন হয় রিয়্যাল লাইফে তখন?

সম্প্রতি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে ওই দৃশ্যের ভিডিওটি। তাতে যা দেখা যাচ্ছে, তা ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন। কেননা, এই ধরনের স্টান্ট যে কোনো সুস্থ মানুষের রক্তচাপ বাড়িয়ে দেবে।

ঘটনাটি ভারতের উত্তর প্রদেশের গাজিয়াবাদের। একদল কিশোর একটি রিয়্যাল লাইফ স্টান্ট দেখালো। যা একটি বলিউড বা হলিউড ছবির থেকে কোনো অংশেই কম নয়। নিখুত অংক আর মনের অদম্য সাহস। আর তাতেই জয়।

ভিডিওতে প্রকাশ, ওদেখা যাচ্ছে, নদীর উপর ট্রেনের ব্রিজে দাঁড়িয়ে রয়েছে বেশ কয়েকটি কিশোর। প্রবল গতিতে ছুটে আসছে সেই ট্রেন। ক্রমাগত হুইসেল বাজিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু ব্রিজের উপরে সেই কিশোরদের কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই। ট্রেন ব্রিজে উঠে যাওয়ার পরও তারা ঠায় দাঁড়িয়ে। ট্রেন একেবারে ঘাড়ের উপরে যখন প্রায় চলে এসেছে, সেই কিশোররা ঠিক তখনই একে একে ঝাঁপিয়ে পড়ছে নদীতে। আবার সাঁতার কাটতে কাটতে হাত নেড়ে বিদায় জানাচ্ছে ট্রেনটিকে। এটাই নাকি তাদের প্রতিদিনের খেলা!

কিন্তু এবার সেই খেলা বন্ধ হতে যাচ্ছে। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর গাজিয়াবাদ প্রশাসন তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। স্থানীয় জেলা প্রশাসক বিমলকুমার শর্মা বলেছেন, ‘এসপি (রুরাল) রাকেশ পান্ডে এবং এডিএম (সিটি) প্রীতি জয়সওয়ালকে নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গড়া হয়েছে। কোথায়, কারা এই কাণ্ড ঘটাচ্ছে, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। যা যা করার, সব করবো।’

এসপি রাকেশ পান্ডে বলেন, ‘ক্লিপটি দেখে মনে হচ্ছে বেশ কয়েক দিনের পুরনো। স্থানীয় মাসুরি কিশোর-তরুণদের কাণ্ড এটি। এ এলাকার কাছে আমরা পুলিশ মোতায়েন করেছি।’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন



« (পূর্বের সংবাদ)