মেইন ম্যেনু

ট্রেন্ডি গয়না’র রকমফেরে এবারের শীত ফ্যাশন

এখন গয়নার ক্ষেত্রে অনেক পরিবর্তন এসেছে। আগেকার সেই মান্ধাতা আমলের গয়না পরার চেয়ে সাধারণ সিম্পল ট্রেন্ডি গয়নাই এখন সবার পছন্দ। যেগুলো সচরাচর সব সময় পরা যায়। আর এখন শীতকাল। এসময় চারিদিকে পার্টি চলে। সেইসব পার্টিতে নিজেকে আরো আর্কষণীয় করতে এসব ট্রেন্ডি গয়নার কোন বিকল্প নেই। তাহলে আসুন জেনে নেই সেই স্বর্ণের গয়নার বাইরেও এখন কি ধরনের গয়না ট্রেন্ডি হয়ে বাজার মাতাচ্ছে।

হুপ ইয়াররিং- হুপ ইয়াররিং মানে চুরির মতো গোল বড় ইয়াররিং। এটা এ বছর ফ্যাশনে ইন। খোলা চুল বা পনিটেলে জিন্স-টপ বা ইন্দো ওয়েস্টার্ন ড্রেসের সঙ্গে দিব্যি মানায় এটা। চাইলে পোশকের রঙের সঙ্গে মিলিয়েও পরতে পারেন। একটু অফবিট ফ্যাশন চাইলে ট্রাইবাল লুকের হুপ ইয়াররিং বেছে নিতে পারেন। সবার নজর থাকবে আপনারই দিকেই।

ক্রিস্টাল ফ্লাওয়ার- কোনও পার্টি বা গেট টুগেদার বা বন্ধুদের সঙ্গে বাইরে খেতে গেলে শীতে ব্যবহার করতে পারেন ক্রিস্টাল ফ্লাওয়ার। মানে ব্রোচ, নেকলেস, ব্রেসলেট সবকিছুতেই রঙ-বেরঙের ক্রিস্টাল ফ্লাওয়ারের চাহিদা এখন তুঙ্গে৷ সাদামাটা পোশাকেও গলায় একটা ক্রিস্টাল ফ্লাওয়ার সমেত নেকলেস আপনার ব্যক্তিত্বকে আলাদা মাত্রা দেবে৷তবে গয়নার ক্রিস্টাল ফ্লাওয়ার যদি আকারে বড় হয়, তাহলে পোশাকটা একটু সাদামাটা বাছাই ভালো। সমতা বজায় থাকবে তাহলে।

কাফ- কাফ-হাতে একটা পাথর বসানো কাফ বা ব্রেসলেট, ব্যস আপনাকে আর অন্য কোনও গয়না পরতে হবে না। ইভনিং গাউন, সালোয়ার, কুর্তি সবের সঙ্গেই পাথর বসানো ব্রেসলেট দারুণ মানায়৷সঙ্গে ভুলেও সোয়েটার পরবেন না৷ শাল নিন। এলিগেন্ট লাগবে।

ক্রিস্টাল আংটি- হাতের আঙুলে একটা ল্যাপিজ ল্যাজুলি বা লার্জ ক্রিস্টালের আংটি গলিয়ে নিলে এক লহমায় বদলে যাবে আপনার লুক৷ তবে হ্যাঁ আগে থেকে ম্যানিকিওরটা সেরে রাখতে হবে বই কী! আর রাস্টিক লুকের কোনও ব্যান্ডে যদি পাথরটা বসানো থাকে তাহলে আংটির সৌন্দর্য নিয়ে আলাদা করে আর কিছু বলার নেই। এবারের শীত ফ্যাশনে এই জুয়েলারি কিন্তু বাজার মাতাচ্ছে।

ফ্রিঞ্জড ব্রেসলেট- এবার ফ্রিঞ্জড ব্রেসলেটও খুব ভালো চলছে৷ মানে বিডসের অনেকগুলো ঝালোড় দেওয়া। আর এর সবচেয়ে বড় প্লাসপয়েন্ট হচ্ছে শাড়ির সঙ্গেও এটা খুব মানিয়ে যায়।

ট্রাইবাল নেকলেস- মানে ডোকরার কাজ করা গলার হার, টেরাকোটার লকেট সমেত নেকলেস বরাবরই ফ্যাশনে হট৷ এবছরও তার ব্যতিক্রম নেই৷ হলুদ, কালো, খয়েরি, মেরুন শেডের বিব নেকলেস বা টিবেটিয়ান নেকলেস শাড়ি বা জিনস সবকিছুর সঙ্গেই চলতে পারে অনায়াসে। তবে জিনসের সঙ্গে পরতে হলে ডিপ কাট পুলওভার বা টপ পরুন।

বিডস জুয়েলারি- প্রাচীন কাল থেকেই মহিলা প্রসাধনীতে বিডসের চাহিদা তুঙ্গে। তাই শীত ফ্যাশনেও একে অনায়াসেই সামিল করা যেতে পারে। বিডসের ব্রেসলেট, চোকার, নেকলেস, দুল পরতে পারেন পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে। শীতে গায়ে বিডস লাগলে কোনওরকম অস্বস্তির অনুভূতি হবে না। সঙ্গে আপনার ফ্যাশন সেন্সও সবার প্রশংসা কুড়োবে।

মুক্তো-সাদা, কালো, হলুদ, গোলাপি-একই নেকলেসে বহু রূপ৷ মুক্তোর বিভিন্ন লেয়ারের মাল্টিরালার নেকলেসও একবার ট্রাই করে দেখতে পারেন। হাল্কা ডিজাইন হলে পরতে পারেন অফিসে৷ আর ভারী ডিজাইন হলে তুলে রাখুন পার্টির জন্য। পিঙ্ক-সিলভার, সাদা-গোল্ডেনের মতো অফবিট কম্বিনেশনকেই বাছুন আপনার গয়নার ক্ষেত্রে।

লম্বা পাথরের দুল- যদি হুপস ইয়াররিং পছন্দ না হয়, তাহলে একটু লম্বাটে ধরনের পাথর বসানো কোনও কানের দুল পরতে পারেন। সঙ্গে চুলটা খুলে একদিকে রাখুন বা টাইট করে পনিটেল করে নিন। গলায় একটা সরু চেন৷ ব্যাস! পার্টির কেন্দ্রবিন্দু হয়ে যাবেন আপনি।