মেইন ম্যেনু

ঠান্ডা পানিতে মুখ ধোয়ার উপকারিতা

সারারাত ঘুমের পর সকালে ওঠার পর ত্বক কেমন ম্লান দেখায়। যেন ত্বকের উজ্জ্বলতা হারিয়ে গেছে। ঘুম থেকে উঠে ত্বকের প্রয়োজনে ঠান্ডা পানির ঝাপটা। ঘুমের সময় রোমকূপগুলিতে ফোলাভাব দেখা দেয়, সেটাও কমবে, রোগজীবাণুর হাত থেকেও মুক্তি পাবেন। মুখে ঠান্ডা পানির ঝাপটা জাদুর মতো কাজ করতে পারে –

১. ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখে ধুলে ত্বকের রোমকূপগুলি বন্ধ হয়ে যায়। গরম পানিতে মুখ ধোয়ার পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। তাতে চোখ থেকেও ধুলোবালি বেরিয়ে যাবে।

২. ঠান্ডা পানি ত্বকের অ্যান্টিরিংকেলস্ ক্রিম হিসেবে কাজ করে। ত্বককে তরতাজা করে তোলে। মুখের বলিরেখা দূর করে। সেইসঙ্গে ত্বকের যৌবন বজায় রাখতে নিয়মিত ঠান্ডা পানির ঝাপটা দেওয়া প্রয়োজন।

৩. ঠান্ডা পানির ঝাপটা ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর কণা থেকে বাঁচাতে পারে। সুর্যের আলোর সংস্পর্শে এসে ত্বকের রোমকূপগুলি খুলে যায়। যা ত্বকে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে। তাই গরমের সময় বার বার ঠান্ডা পানি মুখে দেওয়া প্রয়োজন।