মেইন ম্যেনু

ঠান্ডা পানিতে মুখ ধোয়ার জাদুকরী উপকারিতা

কখনো খেয়াল করেছেন ঘুম থেকে ওঠার পরই আপনার মুখটা কেমন ফোলা ফোলা থাকে। এর কারণ হলো আমরা যখন ঘুমায় তখন আমাদের মুখের কোষগুলো পুনরুজ্জীবিত হয়, এবং মুখের লোমকূপ ঢেকে যায়। ফলে সেটা খানিকটা ফোলা ফোলা দেখায়। ভাববেন না, এমন ত্বক পাওয়া শুধু সকালেই সম্ভব। সারাদিন এমনই ত্বক পেতে আপনার দরকার ঠান্ডা পানি।

মুখ ধোয়ার জন্য অনেকেই বেছে নেন গরম পানি। হালকা গরম পানিতে মুখ ধোওয়া অনেক বেশি উপকারী বলেই মনে করেন অনেকে। কিন্তু ঠান্ডা পানিতে মুখ ধোওয়ার জাদু আপনি আপনার ত্বকেই টের পাবেন। জেনে নিন ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধোয়ার কিছু উপকারিতা।

ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধুলে সেটা মুখের খুলে যাওয়া লোমকূপ বন্ধ করতে সাহায্য করবে। ফলে ত্বকে ময়লা জমবে কম। তাই হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধোয়ার পরও চেষ্টা করুন মুখে ঠান্ডা পানির ছিটা দিতে। খোলা লোমকূপ অনেকটাই বন্ধ হয়ে যাবে। শুধু তাই না চোখটাও একটু স্বস্তি পাবে।

বলিরেখা রোধ করতেও ঠাণ্ডা পানির জুড়ি মেলা ভার। ঠাণ্ডা পানি এ্যান্টি রিঙ্কেল ক্রিম হিসেবে খুব ভালো কাজ করে। ত্বক পরিচ্ছন্ন ও তরুণ দেখাতে ঠাণ্ডা পানির বিকল্প নেই। মুখ পরিষ্কার করতে নিয়মিত ঠাণ্ডা পানি ব্যবহার করুন। দেখবেন ত্বকের বয়স বাড়ার প্রবনতা অনেকটাই কমে এসেছে, সঙ্গে বলিরেখাও কমছে।

মুখে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দেওয়ার আর একটি সুবিধা হলো এটা ত্বককে ক্ষতিকর সূর্যরশ্নি থেকে রক্ষা করে। ঠাণ্ডা পানি সূর্যের আলোর প্রভাবে খুলে যাওয়া লোমকূপ বন্ধ করে ত্বককে আরো টানটান করে, পাশাপাশি সেই টানটান ত্বক স্থায়ী হতে সাহায্য করে।