মেইন ম্যেনু

ডিউটিতে মোবাইল ব্যবহার করতে পারবে না পুলিশ

তল্লাশি চৌকি বা ডিউটিরত অবস্থায় মোবাইল ব্যবহার করতে পারবে না পুলিশ। তবে শুধুমাত্র ইউনিটের ইনচার্জ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। প্রয়োজনে ওই মোবাইল থেকে বাকিরা যোগাযোগ করতে পারবেন। তবে কোনো সদস্য ভুলে ডিউটিতে মোবাইল নিয়ে এলেও তা বন্ধ রাখতে হবে।

রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে সোমবার সর্বস্তরের পুলিশ সদস্যের সঙ্গে মতবিনিময়কালে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক এ নির্দেশনা দিয়েছেন। বিকেল ৪টায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত মতবিনিয়ম সভা চলে।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত থাকা ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কয়েকজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রাজধানীর গাবতলী ও সাভারের আশুলিয়ায় পুলিশের ওপর সন্ত্রাসী হামলায় দু’জন পুলিশ সদস্য নিহত হন। এ সব ঘটনার কয়েকদিন পর পুলিশ সদর দফতর এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করল।

গত ৪ নভেম্বর সাভারে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে সশস্ত্র কনস্টেবল মুকুল হোসেন নিহত হন। এছাড়া গত ২২ অক্টোবর রাজধানীর গাবতলীতে চেকপোস্টে সন্ত্রাসীদের চুরিকাঘাতে নিহত হন পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক ইব্রাহিম মোল্লা। এ ঘটনার পর থেকে পুলিশ সদস্যদের মধ্যে মনোবলের ঘাটতি ও নিরাপত্তাহীনতা দেখা দেয়। ডিউটিতে পুলিশ সদস্যরা মোবাইল ফোন নিয়ে ব্যস্ত থাকেন বলে অনেকে অভিযোগ করেন।

ডিএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশার (এডিসি) পদমর্যাদার এক কর্মকর্তা বলেন, ‘পুলিশ সদস্যদের মধ্যে আত্মশুদ্ধি, মনোবল তৈরি ও মটিভেশন বাড়ানোর লক্ষ্যে এই মতবিনিময়ের আয়োজন করা হয়েছিল।’

তিনি বলেন, ‘অনুষ্ঠানে আইজিপি স্যার বলেছেন, ডিউটিরত অবস্থায় মোবাইল ফোন ব্যবহার করা যাবে না। একসঙ্গে চার-পাঁচ জন ডিউটিতে গেলে তাদের ইনচার্জ মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন। প্রয়োজনে বাকিরা ‍ওই মোবাইল থেকে যোগাযোগ করবেন। কোনো কারণে মোবাইল নিয়ে গেলেও সেটি বন্ধ রাখতে হবে।’

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘এটা কাগজে-কলমে নির্দেশনা না হলেও আইজিপি স্যার এগুলোর বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলেছেন।’

পুলিশের তল্লাশি চৌকিতে ন্যূনতম একজন সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) পদমর্যাদার কর্মকর্তা ইনচার্জের দায়িত্বে থাকেন।

অপর এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ডিউটিতে গেলে পুলিশ সদস্যরা যেন অধিকতর সতর্কাবস্থায় থাকেন, সে বিষয়েও বিশেষ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তারা যেন যথাযথ ড্রেসআপ করে (নিরাপত্তা পোশাক) ডিউটিতে যান।’

অস্ত্র ব্যবহারের ক্ষেত্রে কোনো পুলিশ সদস্যের মধ্যে কোনো ধরনের ভীতসন্ত্রস্ত ভাব রয়েছে কিনা- সেটিও জানতে চাওয়া হয়েছে।

সভায় আগত পুলিশ সদস্যদের আত্মবিশ্বাসী হতে বলা হয়। একই সঙ্গে আত্মরক্ষার অধিকার যে সবার আছে, সেটিও তাদের স্মরণ করিয়ে দেন আইজিপি।

এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার বলেন, ‘ডিউটিরত অবস্থায় পুলিশ সদস্যদের মোবাইল ব্যবহার না করতে আইজিপি স্যার নিরুৎসাহিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ডিউটিতে আরও সকর্ত অবস্থায় থাকতে হবে। সাভার ও গাবতলীর মতো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা যেন না ঘটে সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে।’

এ ছাড়া মাঠপর্যায়ের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে পুলিশ সদস্যরা কী কী ধরনের সমস্যায় পড়েন, সেগুলো তাদের কাছে জানতে চাওয়া হয় এবং তাদের মতামত নেওয়া হয়।দ্য রিপোর্ট