মেইন ম্যেনু

ডেসকোর লাইন মাটির নিচে নিতে প্রকল্প উঠছে একনেকে

ঢাকা ইলেকক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেডের (ডেসকো) আওতাধীন ঢাকা ও গাজীপুরের ৮৫ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন স্মার্ট সিটির আদলে মাটির নিচে নামিয়ে আনা হচ্ছে। আশা করা হচ্ছে, এতে বদলে যাবে ডেসকো এলাকার বিদ্যুৎ খুঁটি আর লাইনের বর্তমান চিত্র। এজন্য চীনের নব নির্মিত এশিয়ান ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকের (এআইআইবি) সহায়তায় নতুন প্রকল্প হাতে নিচ্ছে সরকার।

একই সঙ্গে ডেসকোর আওতাধীন উত্তরা, বসুন্ধরা এলাকায় গ্রিড উপকেন্দ্রের ক্ষমতা বর্ধন ও পুনর্বাসনেও সহায়তা দিচ্ছে নতুন এই ব্যাংকটি।

মঙ্গলবার রাজধানীর এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় দুটি আলাদা প্রকল্প অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হবে। এই সভায় সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, ডেসকো এলাকায় বিদ্যমান ৩৩ কেভি ওভারহেড লাইনকে আন্ডারগ্রাউন্ড কেবলে রূপান্তর, ক্ষমতা বর্ধন ও স্থাপন শীর্ষক প্রকল্পে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৬৮ কোটি ৮০ লাখ টাকা। এর মধ্যে এআইআইবি ঋণ হিসাবে দেবে ৩৫৮ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। বাকি টাকা সরকারের নিজস্ব অর্থায়ন (জিওবি) ও ডেসকো বরাদ্দ দেবে।

ঢাকা ও গাজীপুরের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও সরবরাহ লাইনের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে বিতরণ ব্যবস্থার নির্ভরযোগ্যতা বৃদ্ধি ও অন্যান্য সমস্যা কমিয়ে আনতেই এই উদ্যোগ। বিশ্বের উন্নত দেশের শহরাঞ্চলে মাটির নিচ দিয়ে বিদ্যুৎ লাইন টানা হয়। চীনের সহযোগিতায় ধীরে ধীরে সে ব্যবস্থায় যাওয়ার জন্য এটিকে প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে দেখছে সরকার।

প্রকল্পের অধীনে নতুন ৩৩টি আন্ডারগ্রাউন্ড কেবল স্থাপন ও লোড ক্ষমতা বৃদ্ধি, আন্ডারগ্রাউন্ড কেবলস ও বিতরণ সাব স্টেশনের মধ্যে সংযোগ স্থাপন এবং অন্যন্যা সমস্যা দূর হবে।

অন্যদিকে আড়াইশ কোটি টাকা ব্যয়ে ডেসকোর উত্তরা ও বসুন্ধরা এলাকায় ১৩২/৩৩/১১ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্রর ক্ষমতা বর্ধন ও পুনর্বাসনে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এই প্রকল্পটিতেও এআইআইবি ১৫৮ কোটি টাকার সহায়তা দিচ্ছে। বাকি টাকা সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ব্যয় হবে।

এই অর্থ দিয়ে আলোচ্য এলাকায় স্বল্পক্ষমতা সম্পন্ন ও অকার্যকর ৫০/৭০ এমভিএ ও এআইএস সিস্টেম প্রতিস্থাপন করা হবে। এছাড়া বিদ্যমান গ্রিডের ক্ষমতা বাড়ানো হবে। এর মাধ্যমে ৭০ হাজার নতুন গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া যাবে।

এ প্রসঙ্গে পরিকল্পনা কমিশনের শিল্প ও শক্তি বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সদস্য জুয়েনা আজিজ বলেন, এআইআইবি বাংলাদেশের উন্নয়নে নতুন অংশীদার। এটা একটা ভালো খবর যে, ব্যাংকটির সহায়তায় নতুন দুটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প অনুমোদনের জন্য প্রস্তাব পাঠিয়েছে ডেসকো। মঙ্গলবার একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করতে সুপারিশ করা হয়েছে।