মেইন ম্যেনু

ড্রাগ টেস্টঃ সাময়িক নিষিদ্ধ ইয়াসির শাহ

পাকিস্তানের লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ ড্রাগ টেস্টে পজেটিভ প্রমাণিত হয়েছেন। তাকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

রোববার আইসিসি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, গত ১৩ নভেম্বর ইয়াসিরের ডোপ টেস্ট করা হয়েছিল। সেই নমুনায় এই লেগ স্পিনারের শরীরে নিষিদ্ধ উপাদান পাওয়া গেছে।

আর তখন আবু ধাবিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে খেলেছিলেন ইয়াসির। ওই সিরিজ শেষে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলে গেছেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল)।

আইসিসি অ্যান্টি-ডোপিং বিধি অনুযায়ী পরের প্রক্রিয়াগুলো শেষ না হওয়া পর্যন্ত ক্রিকেটের বাইরে থাকতে হবে ইয়াসিরকে। একই সঙ্গে আইসিসির তালিকাভুক্ত কোনো দেশের আয়োজিত লিগেও মাঠে নামতে পারবেন না।

ইয়াসির শাহ দ্বিতীয় দফায় নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য অনুরোধ করতে পারবেন। দুর্নীতি বিরোধী ট্রাইব্যুনালেও আপিল করতে পারবেন। এই সব প্রক্রিয়ার পরেও পজেটিভ প্রমাণিত হলে আইসিসি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে।

এর আগে, চলতি বছরের মে মাসে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) বাঁ-হাতি স্পিনার হাসান রাজাকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিলো ড্রাগ টেস্টে পজেটিভ হওয়ার জন্য। এছাড়াও সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার কুশল পেরেরাকে একই অভিযোগে চার বছর নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

গত এক বছরে টেস্ট ক্রিকেটে পাকিস্তানের মূল অস্ত্র এই লেগ স্পিনার। গত বছরের অক্টোবরে টেস্ট অভিষেক হয় ইয়াসিরের। মাত্র ১২ টেস্টেই তিনি নিয়েছেন ৭৬টি উইকেট।