মেইন ম্যেনু

‘ঢাকার প্রবেশপথ ভালো হলে দুর্ভোগ কমত’

ঈদযাত্রায় মানুষের দুর্ভোগটা আরো সহনীয় করা যেত। কিন্তু তা করা যায়নি বলে স্বীকার করেছেন সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ ক্ষেত্রে ঢাকার প্রবেশপথগুলোর ব্যবস্থাপনা আরেকটু ভালো হলে মানুষের দুর্ভোগ আরো কমত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

বুধবার দুপুরে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল পরিদর্শনে আসেন ওবায়দুল কাদের। এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অবিরাম বৃষ্টিপাতের মধ্যে মহাসড়কে যে যানজট হওয়ার কথা সেটা হয়নি, কিন্তু ঢাকার প্রবেশপথগুলোর ব্যবস্থাপনা আরেকটু ভালো হলে মানুষের দুর্ভোগ আরো কমত।’

সব কটি প্রবেশপথের মধ্যে সায়েদাবাদেই রাস্তার অবস্থা খারাপ দাবি করে তিনি বলেন, ‘সিটির রাস্তাগুলো আমার দায়িত্বে না, মেয়রের। নবনির্বাচিত মেয়রকে আমি বলেছি, কিন্তু মেয়র আর্থিক সংকটের কথা বলেছেন। তারপরেও আমি অন্তত বড় গর্তগুলোকে ভরাট করে কিছুটা সহনীয় করার কথা বলেছি।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘অবিরাম বৃষ্টিপাতের কারণে আমাদের অনেক প্রস্তুতিতেই বিঘ্ন ঘটেছে। মহাসড়কের রাস্তাগুলো খুব ভালো না হলেও সহনীয়। তবে প্রবেশপথগুলোর ব্যবস্থাপনাটা আরেকটু ভালো হতে পারত।’

পরিবহণে বাড়তি ভাড়া আদায়ের বিষয়ে মন্ত্রী সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা লিখেন, মন্ত্রী দাবি করেছেন কোথাও বাড়তি ভাড়া আদায় হচ্ছে না। এখানে আমার দাবি করার কী আছে? আপনাদের সামনেই আমি যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেছি। কেউ বাড়তি ভাড়ার বিষয়ে আমার কাছে অভিযোগ করেনি। নির্দিষ্ট করে আমাকে কেউ বললে আমি অবশ্যই ব্যবস্থা নেব।’

তিনি আরো বলেন, ‘কোথাও ধীরগতিতে গাড়ি চলল, আপনারা স্ক্রল দিলেন। কিন্তু ১০ মিনিট পর যান চলাচল স্বাভাবিক হলেও আপনারা স্ক্রলটা আর নামান না। এখানে আপনাদের আরেকটু সতর্ক হওয়া উচিত।’



(পরের সংবাদ) »