মেইন ম্যেনু

ঢাকার ফুটপাত ফাঁকা

‘যেটা ধরবেন একশ’, ‘যেটা ধরবেন দুইশ’ বা ‘বেছে নিন একশ’- এমন হাঁক-ডাক দিতে থাকেন বিক্রেতারা। ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড় জমে থাকত। পথচারীদের সেই ভিড় ঠেলে সামনে চলা কঠিন হয়ে পড়ে।

গত চারদিন ফুটপাতে ভিড় নেই। নেই বিক্রেতাদের হাঁক-ডাক। ফুটপাত জুড়ে নেই পণ্যের পসরা। রাজধানীর পথচারীরা স্বস্তিতে ফুটপাত দিয়ে হাঁটতে পারছেন।

আর দু’-একদিন পর ঢাকার ফুটপাত আবার ফিরে পাবে আগের চেহারা। শোনা যাবে বিক্রেতাদের হাঁক-ডাক। দেখা যাবে ক্রেতাদের ভিড়। পথচারীদের চলতে হবে ভিড় ঠেলে ঠেলে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বায়তুল মোকাররমের সামনের ফুটপাতে রফিক হোসেন নামের এক পথচারী বলেন, ফুটপাত পথচারীদের। কিন্তু পথচারীরা দুই ঈদ ছাড়া ফুটপাত দিয়ে স্বস্তিতে চলাফেরা করতে পারেন না। আজ ফাঁকা আছে। দু’-তিন দিন গেলে আর ফাঁকা থাকবে না। আবার ভিড় ঠেলে হাঁটতে হবে।

আলামিন নামের আরেক পথচারী বলেন, ফুটপাত ফাঁকা থাকায় কোনো প্রকার প্রতিবন্ধকতা ছাড়াই হেঁটে যেতে পারছেন। ফুটপাত জুড়ে দোকান বসলে লোকের ভিড় ঠেলে হাঁটাচলা করতে হয়। সময়ও বেশি লাগে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কেউ কেউ ফুটপাতে পণ্যের দোকান সাজাতে শুরু করেছেন। দু-একদিনের মধ্যে শুরু হবে বেচা-কেনা।