মেইন ম্যেনু

ঢাকার রাস্তায় বন্যা!

রাজধানীর রাস্তা প্লাবিত মানে গোঁড়ালি অথবা হাঁটু পর্যন্ত পানি-এতদিন এটাই জেনেছে রাজধানীবাসী। কিন্তু আজ তাদের পড়তে হল নতুন এক অভিজ্ঞতার সামনে। মিরপুর রোডের ধানমন্ডি-৩২ থেকে আসাদ গেট পর্যন্ত কোমর সমান পানি। কোথাও তার থেকে বেশি! সাইন্সল্যাব থেকে মিরপুরগামী রাস্তা পুরো থমকে আছে। মেট্রোর সামনে পানির এতটাই নাজেহাল অবস্থা যে, গাড়ি চলাচল করতে পারছে না।

এক ব্যক্তি জানালেন, তিনি মাইক্রোবাস নিয়ে ল্যাবএইডের সামনে থেকে মেট্রো অব্দি এসেছেন চার ঘণ্টায়! মহাসড়কের এমন জ্যামের প্রভাব পড়েছে মিরপুর রোডের আশপাশের এলাকায়। অলিতে-গলিতে অসহনীয় জ্যাম ছড়িয়ে পড়েছে। সবচেয়ে বিপাকে পড়েছেন অভিভাবক এবং শিক্ষার্থীরা। স্কুল থেকে সন্তানদের নিয়ে কেউ বাড়ি ফিরতে পারছেন না। এত পানি দেখে ছোটো-ছোটো ছেলেমেয়েরা কান্নাকাটি করছে।

ধানমন্ডি বয়েজ স্কুলে পড়ে মিরাজ উদ্দিনের ছেলে। মিরাজ উদ্দিন বললেন, ‘ঢাকার রাস্তায় এত পানি জীবনে দেখিনি। গ্রামের রাস্তায় এমন পানি দেখেছি বলে মনে পড়ে না। ছেলেকে নিয়ে দুই ঘণ্টা ধরে রাস্তা পার হওয়ার চেষ্টা করছি।

লালমাটিয়ার রিকশাওয়ালারা জানিয়েছেন, মহাসড়কের এমন অবস্থার জন্য সমগ্র লালমাটিয়া এবং মোহাম্মদপুর জ্যামে থমকে আছে। দবির শেখ নামে এক রিকশাওয়ালা জানালেন, টাউন হল থেকে মেট্রোর সামনে আসতে তার সময় লেগেছে পুরো সাড়ে তিন ঘণ্টা! আজ ঢাকায় আহামরি বৃষ্টি হয়নি। ‍দুপুর থেকে যতটুকু হয়েছে, তাতে এ অবস্থা হওয়ার কথা নয়। তাহলে এত পানি এলো কোথা থেকে? স্থানীয়রাও বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। তারাও বুঝে উঠতে পারছেন না এত পানির রহস্য।