মেইন ম্যেনু

ঢাকায় থাকবে না কোনো বিদ্যুৎখুঁটি

ঢাকার রাস্তায় আর থাকছে না কোনো বৈদ্যুতিক তার অথবা খুঁটি। রাজধানীর সমস্ত বৈদ্যুতিক তার মাটির নিচে সরিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। সেই সাথে মাটির নিচে ৭০টি সাবস্টেশন নির্মাণের পরিকল্পনাও রয়েছে সরকারের।

কাকরাইল, তেজগাঁও, মোহাম্মদপুর, আজিমপুর, খামারবাড়ি, কাঁটাবন, মগবাজার, হাতিরঝিলসহ ১৭টি স্থানে ১৩২ কেভি সাবস্টেশন স্থাপন করা হবে।

২০২৩ সালের মধ্যে রাজধানীকে বৈদ্যুতিক তার, খুঁটি এবং লোডশেডিংমুক্ত করার লক্ষ্যে ঢাকা পাওয়ার ডিসট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডিপিডিসি) এই মহাপরিকল্পনা প্রণয়ন করে।

এ বছরের মধ্যেই প্রকল্প প্রণয়নের কাজ শেষ হবে বলে জানান ডিপিডিসি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) নজরুল হাসান। এরপর প্রকল্প প্রস্তাবটি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিপরিষদ কমিটিতে চলতি বছরেই পাঠানো হবে বলে তিনি জানান।

তিনি জানান, চীন সরকারের সহায়তায় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে খরচ হবে প্রায় ৩ বিলিয়ন ডলার। দেড় থেকে ২ শতাংশ সুদে চীন এই সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে।

নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ বিতরণ নিশ্চিত করার সাথে সাথে রাজধানীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির লক্ষ্যেই সরকার এ মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে বলে জানান তিনি।

২০ তলা ভবনের ভূ-তলে নির্মাণ করা হবে সাবস্টেশনগুলো, আর বহুতল ভবনগুলোর ওপরে বাণিজ্যিক কার্যালয় এবং বিদ্যুৎবিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের আবাসিক ভবন হিসেবে ব্যবহার করা হবে বলে জানায় ডিপিডিসি।

ভূগর্ভস্থ টানেলের ভেতর দিয়ে সব তার নেওয়া হবে। পাঁচ বছর মেয়াদি এই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে ২০১৭ সালে।