মেইন ম্যেনু

ঢাকায় পণ্য আনা-নেয়াতেও দিতে হবে কর, আসছে উপ-করও

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বাসিন্দাদের ওপর করভার বাড়ানো হচ্ছে। বাইরের জেলা থেকে ঢাকায় পণ্য আনা-নেয়াতে যথাক্রমে আমদানি-রপ্তানি কর এবং যেসব খাতে ইতিমধ্যে সরকার কর আরোপ করেছে সেসব খাতে উপ-কর আদায় করবে দুই সিটি করপোরেশন।

বুধবার বিকেলে এনবিআরের সম্মেলন কক্ষে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়রদের নিয়ে পার্টনারশিপ ডায়ালগের আয়োজন করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এই অনুষ্ঠানে নতুনভাবে এই দুই কর আদায়ের ব্যাপারে সহযোগিতা চান দুই সিটি মেয়র আনিসুল হক ও মেয়র সাইদ খোকন।

অবশ্য নতুন ওই দুই কর স্থানীয় সরকার আইন-২০০৯ এর ৮২ নম্বর ধারাতে আগেই বলা হয়েছে। কিন্তু তা বাস্তবায়ন করা হয়নি। আইনে বলা হয়েছে, সিটি করপোরেশন চাইলে নগরীতে ভোগ, ব্যবহার বা বিক্রির জন্য আমদানি করা পণ্যে ও নগরী হতে রপ্তানি করা পণ্যে সরাসরি কর আরোপ করতে পারে।

আইনে আরও বলা হয়েছে, সরকার যেসব ক্ষেত্রে কর আরোপ করে আসছে সিটি করপোরেশন চাইলে সেগুলোর ওপরও উপ-কর আরোপ করতে পারবে।

অনুষ্ঠানে দক্ষিণের মেয়র সাইদ খোকন বলেন, বর্তমানে সিটি করপোরেশনের যে রাজস্ব আয় হয় তা দিয়ে বেতন-ভাতা চালানোই কষ্টসাধ্য, উন্নয়ন কাজ কী করবো। তাই বিভিন্ন ক্ষেত্রে উপ-কর আরোপ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

মেয়র আরো বলেন, বিশেষ করে সিটি করপোরেশন এলাকায় আমদানি ও রপ্তানি (ঢাকা শহরের প্রবেশ ও বাহিরের সময়) পণ্যের ওপর কর আদায়ের সুযোগ আছে। তবে এ সংক্রান্ত কোনো নীতিমালা এখনো তৈরি হয়নি। নীতিমালা তৈরি হলেই এ কর আদায় করা সম্ভব হবে। আর এটা করা হলে সিটি করপোরেশনের আর্থিক সংকট কিছুটা হলেও দূর হবে।

এসময় ঢাকা উত্তরের মেয়র আনিসুল হক বলেন, এনবিআরে কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে ও সুবিধা নিতে এসেছি। বিশেষ করে দেশে সিটি করপোরেশনের উপ-কর আরোপের বিষয়ে একটি আইন আছে। ২০০৯ সালে প্রণয়রণ করা এ আইন কার্যকর করা হবে।

তিনি বলেন, আমাদের কিছুই করার নেই। সিটির প্রয়োজনে নতুন রাজস্ব খুঁজে বের করতে হচ্ছে। কারণ আমরা আর্থিক সংকটে আছি। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে উপ-কর আদায়ের জন্য সঠিক নীতিমালা করতে এনবিআরের সঙ্গে যৌথভাবে বসবো আমরা। চলতি অর্থবছরে উপকর আরোপের আইন প্রয়োগ করা সম্ভব না হলেও আসছে অর্থবছর থেকে এটি কার্যকর করা হবে।

এ ব্যাপারে এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান বলেন, ঢাকা সিটি করপোরেশন এলাকা থেকে মোট রাজস্বের ৬০ ভাগ আদায় করি। তাই দেশের উন্নয়নে এবং ঢাকার দুই সিটির উন্নয়নে এই পার্টনারশিপ ডায়ালগের আয়োজন করা হয়েছে। আমরা দেশের স্বার্থে সব ধরনের কাজ করে যাবো।

পার্টনারশিপ ডায়ালগে এনবিআর ও দুই সিটি করপোরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।