মেইন ম্যেনু

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ১৫ কিমি এলাকার বেহাল দশা

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের গোড়াই থেকে মির্জাপুর পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলো মিটার এলাকার বেহাল অবস্থা; ঝুঁকিতে চলছে যানবাহন। গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিপাতে মহাসড়কের এই অংশের বিভিন্ন স্থানে ছোট-বড় অসংখ্য খানা-খন্দল তৈরি হয়েছে।

সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এসব ভাঙ্গা গর্তগুলো প্রকট আকার ধারণ করেছে। এতে করে যানবাহনগুলো ধীর গতিতে চলছে। দিনের বেলা চালকরা সাবধানতা অবলম্ববন করে চললেও রাতের অন্ধকারে যেন দুর্ভোগ নেমে আসে। মহাসড়ক নষ্ট হয়ে যাওয়ায় রাতের বেলায় গাড়িগুলো ধীরে চলাচল করে। যার ফলে যানবাহনের লম্বা লাইন পড়ে যানজট সমস্যার সৃষ্টি হয়। অনেক সময় অনাকাংখিত সড়ক দুর্ঘটনাও ঘটে যায়।

এই মহাসড়ক দিয়ে উত্তরাঞ্চলের প্রায় ২০টিরও বেশি জেলার অভ্যন্তরীণ বাস ও ট্রাক যাতায়াত করে। অনেকের মতে, মালবাহী ট্রাকগুলো ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত মালামাল এই সড়কের উপর দিয়ে পরিবহন করায় মহাসড়কের এই বেহাল দশা। এছাড়াও নিম্নমানের ইট ও বালু দিয়ে মহাসড়কের এসব গর্ত ভরাট করা হলেও কাজের ত্রুটি থাকায় ভারী বৃষ্টিপাতে আবার আগের রুপ ধারণ করে। তাই এই ব্যস্ততম এবং গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কটি দ্রুততার সাথে সংস্কার করে মেরামত করা অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়েছে।