মেইন ম্যেনু

ঢাবি ছাত্রীকে হল কর্মচারীর যৌন হয়রানি!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কবি সুফিয়া কামাল হলের এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে এক হল কর্মচারীকে দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে পুলিশের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার দুপুরে তাকে এ সাজা দেয়া হয়।

ওই কর্মচারীর নাম মোহাম্মদ আলী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হলের কর্মচারী এবং সুফিয়া কামাল হলের লন্ড্রিতে কাজ করতেন।

হলের শিক্ষার্থীরা জানায়, রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে এক ছাত্রী হলের প্রশাসনিক ভবনের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত লন্ড্রির সামনে গেলে মোহাম্মদ আলী তার শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। এসময় চিৎকার শুনে হলের অন্য ছাত্রীরা ঘটনাস্থলে এসে আলীকে ধরে আটকে রাখে। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক এ এম আমজাদ, হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক নীলুফার নাহারসহ হলের আবাসিক শিক্ষকরা উপস্থিত থেকে আলীকে শাহবাগ থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটান পুলিশ (ডিএমপি) কার্যালয়ে এ ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসে। আদালতে আলীকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক এ এম আমজাদ বলেন, এক ছাত্রীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছনা করার কারণে ওই কর্মচারীকে পুলিশে সোপর্দ করি। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়।