মেইন ম্যেনু

তদন্ত দ্রুত করতে মাঠে মনিটরিং টিম

নির্মম নির্যাতনে নিহত শিশু শ্রমিক রাকিব হত্যা মামলার তদন্ত দ্রুত করতে পুলিশের তিন সদস্যের পর্যবেক্ষণ (মনিটরিং) দল মাঠে নেমেছে।

বুধবার কমিটির সদস্যরা রাকিবদের বাড়ি, নির্যাতনের স্থান ও খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পরিদর্শন এবং সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেন।

এ কার্যক্রমে কমিটির প্রধান খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার মাহবুব হাকিম নেতৃত্ব দেন। এ সময় কমিটির সদস্য অতিরিক্ত উপ কমিশনার শেখ মনিরুজ্জামান মিঠু ও সহকারী কমিশনার (সদর দপ্তর) হুমায়ুন কবির উপস্থিত ছিলেন।

কমিটির সদস্যরা প্রথমে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান এবং সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেন। পরে তারা টুটপাড়ায় কবরস্থান সংলগ্ন খানজাহান আলী সড়কের শরীফ মোটরস নামের গ্যারেজে নির্যাতনের স্থান পরিদর্শন করেন।

কর্মকর্তারা এরপর নগরীর টুটপাড়া সেন্ট্রাল রোডে রাকিবদের বাসায় যান এবং তার বাবা নুরুল আলম হাওলাদার, মা লাকি বেগমসহ অন্যদের সঙ্গেও কথা বলেন।

সবশেষে টিমের সদস্যরা ঘটনার আওতাধীন খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাজী মোশতাক আহমেদসহ অন্যদের সঙ্গে কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, গত ৩ আগস্ট বিকেলে নগরীর টুটপাড়া কবরখানা সংলগ্ন শরীফ মটরস নামের মোটর সাইকেল গ্যারেজের মধ্যে নিয়ে শিশু রাকিবের পায়ূ পথে কম্প্রেসার মেশিন দিয়ে পেটে হাওয়া দিয়ে তাকে হত্যা করা হয়।