মেইন ম্যেনু

‘তনুর বিষয়ে গাফিলতি সহ্য করা হবে না’

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনুর লাশের দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন কুমিল্লার বিশিষ্টজনরা। একইসঙ্গে হত্যায় জড়িতদের বিচারের দাবি জানিয়েছেন তারা।

সোমবার বিকেলে কুমিল্লা নগরের কান্দিরপাড় টাউন হলের সামনের সড়কে এক মানববন্ধনে এ দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, তনুর লাশের দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত নিয়ে সময়ক্ষেপণ করা হচ্ছে। এতে মৃত্যুর কারণ নির্ণয়, আসামি শনাক্তকরণ ও বিচারকাজে জটিলতা দেখা দিচ্ছে। কোনো অবস্থাতেই এসব গাফিলতি সহ্য করা হবে না।

অবিলম্বে দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করার দাবি জানান তারা। প্রথম ময়নাতদন্তের অসংগতি দূর করতে হবে।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেন বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক বদরুল হুদা জেনু, নাট্যজন শাহজাহান চৌধুরী, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এইড কুমিল্লার নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া বেগম শেফালী, প্রত্যয় কুমিল্লার নির্বাহী পরিচালক মাহমুদা আক্তার, কর্মজীবী নারী কুমিল্লার সম্পাদক আয়েশা সিদ্দিকা, মহিলা হস্তশিল্প কুমিল্লার নির্বাহী পরিচালক নিলুফার ইয়াসমিন, তরী সামাজিক বুনন সাংস্কৃতিক সংগঠনের সমন্বয়কারী রেজবাউল হক রানা ও কুমিল্লা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কাজী এনামুল হক ফারুক প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ২০ মার্চ রোববার রাতে কুমিল্লার ময়নামতি সেনানিবাস এলাকায় তনুর রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়। ওই দিন রাতে কুমিল্লার কোতয়ালি মডেল থানায় তনুর বাবা ইয়ার হোসেন বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

২১ মার্চ তার লাশের প্রথম ময়নাতদন্ত হয়। কিন্তু ওই ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন নিয়ে প্রশ্ন দেখা দেয়ায় ৩০ মার্চ তনুর লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে দ্বিতীয় দফায় ময়নাতদন্ত করা হয়।