মেইন ম্যেনু

তনু হত্যা: পরিবারকে ২০ হাজার টাকা দিল প্রশাসন, জমি দেয়ার আশ্বাস

কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকায় ধর্ষণের পর হত্যাকাণ্ডের শিকার হওয়া কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনুর পরিবারকে জেলা ও উপজেলা প্রাশনের পক্ষে থেকে ১০ হাজার টাকা করে ২০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) সকালে তনুর কবর জিয়ারত করতে তাঁর গ্রামের বাড়ীতে যান মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা পশ্চিম ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামে গিয়ে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনসুর উদ্দিন ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) আজগর আলী। সেখান থেকে তারা তনুর বাড়ি গিয়ে তাঁর বাবা মাকে সান্ত্বনা দেয়ার চেষ্টা করেন।

এসময় ইউএনও তনুর পরিবারের কাছে বিশহাজার হাজার টাকা হস্তান্তর করেন। এ সময় জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে এক খন্ড খাস জমি শোকাহত পরিবারটিকে প্রধানের ঘোষণা দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।

তবে তনুর হত্যাকারী কে বা কারা কিংবা তাদের গ্রেপ্তার করতে কোন অগ্রগতির খবর তারা জানাতে পারেন নি।

পরে উপজেলা প্রশাসন তনুর বাবাকে নিয়ে মেয়েটির কবর জিয়ারত করেন।

সোমবার (২০ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টায় কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরে একটি কালভার্টের পাশ থেকে তনুর (১৮) রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।