মেইন ম্যেনু

তামিমের নামে ঘোষিত ২০ লাখ টাকা পেলো পুলিশের ৪ সংস্থা

নারায়ণগঞ্জে পুলিশের অভিযানে নিহত জঙ্গি তামিম চৌধুরীর নামে ঘোষিত পুরস্কারের ২০ লাখ টাকা পেলো পুলিশের চার সংস্থা। সংস্থাগুলো হলো- পুলিশ সদর দফতরের গোয়েন্দা বিভাগ, ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্র্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট, সোয়াট ও নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ। জঙ্গিবিরোধী সফল সাহসী অভিযানের জন্য তাদেরকে পুরস্কারের এ টাকা দেওয়া হয়।

বুধবার পুলিশ সদর দফতরে আনুষ্ঠানিকভাবে চারটি সংস্থার কর্মকর্তাদের নিকট পুরস্কারের ২০ লাখ টাকা হস্তান্তর করেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক ।

এ সময় অতিরিক্ত আইজপি (প্রশাসন) মোখলেসুর রহমান, ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, অতিরিক্ত আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারীসহ সিনিয়র কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

আইজিপি বলেন, ‘তামিম চৌধুরী এবং সেনা বাহিনীর বরখাস্তকৃত মেজর সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হকের সন্ধানদাতার জন্য ২০ লাখ টাকা করে পুরস্কার ঘোষণা করেছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘ইন্টেলিজেন্স লেড পুলিশিং’ এর মাধ্যমে জননিরাপত্তার স্বার্থে জঙ্গি দমনের এ সাহসী অভিযানের প্রণোদনাস্বরূপ সংশ্লিষ্ট চারটি ইউনিটের পুলিশ অফিসারদের পুরস্কৃত করা হলো।

আইজিপি বলেন, ‘পুরস্কার ঘোষিত অপর জঙ্গি জিয়াউর হকের সন্ধানদাতার জন্য ২০ লাখ টাকা পুরস্কারের ঘোষণা কার্যকর রয়েছে।’

উল্লেখ্য, গত ২ আগস্ট পুলিশের সদর দফতরে সংবাদ ব্রিফিংয়ে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক ঘোষণা দিয়েছিলেন, রাজধানীর গুলশান, কল্যাণপুর ও শোলাকিয়া হামলার ‘মাস্টারমাইন্ড’ তামিম চৌধুরী ও ব্লগার হত্যায় সন্দেহভাজন চাকরিচ্যুত সেনা কর্মকর্তা জিয়াউল হককে ধরিয়ে দিলে ২০ লাখ টাকা করে ৪০ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে।

এরপর গত ২৭ আগস্ট বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যরা নিজস্ব গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ার একটি বাসায় তামিম চৌধুরীসহ তার সহযোগিদের সন্ধান পায় এবং সফল অভিযান চালায়। ওই অভিযানে তামিম চৌধুরী সহ তিন জঙ্গি নিহত হয়। সূত্র: বাসস