মেইন ম্যেনু

তারা আসলে স্বামী-স্ত্রী নন!

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বাসা ভাড়া নিয়ে একসঙ্গে বাস করছিলেন। বেশভূষাও ছিল সন্দেহ না করারই মতো। কিন্তু তাদের চলাফেরায় এলাকাবাসীর সন্দেহ হয়। এলাকাবাসী তাদের ব্যাপারে খোঁজখবর নিয়ে জানতে পারে তারা স্বামী-স্ত্রী নয়। পরে রোববার সকালে তাদের আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

পুলিশ কথিত স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে। আটককৃতদের আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দানকারী দুজনের নাম শফিকুল ইসলাম (২৭) ও শামীমা খাতুন (২০)। শফিকুল ইসলাম ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কলমনখালী গ্রামের বাবর আলীর ছেলে এবং শামীমা খাতুন এই জেলার বদনপুর গ্রামের আবদুল বারী মন্ডলের মেয়ে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, বেশ কয়েক দিন যাবৎ শফিকুল ইসলাম ও শামীমা খাতুন নিজেদের স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে কালীগঞ্জ শহরের বিহারী মোড় এলাকার নুরুল ইসলামের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

তাদের বিরুদ্ধে অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগ এনেছে পুলিশ।