মেইন ম্যেনু

তারেকের বন্ধু আল মামুনের স্ত্রীদের কাহিনি

তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও ব্যবসায়িক অংশীদার (পার্টনার) গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের খবর হঠাৎ করেই সব পত্রিকায় প্রকাশিত হচ্ছে। বহুল আলোচিত এই মামুনের দুর্নীতি মামালায় খালাসের রায় বাতিল এবং তার প্রথম স্ত্রীরও খালাসের রায় বাতিল করেছে মহামান্য আদালত। আর এই প্রথম স্ত্রী শব্দটি খবরে আসাতেই পাঠকের জানবার কৌতুহল হয়েছে তার স্ত্রী’দের কাহিনি জানবার।

শুনুন তার প্রথম স্ত্রী শাহিনা ইয়াসমিনের নিজের মুখে-

শাহিনা বলেন,”১৯৮৪ সালে দরিদ্র ও বেকার মামুনকে বিয়ে করেছিলাম আমি।”

তার পিতার পেনশনের টাকা নিয়ে মামুনের ব্যবসা শুরু করার কথা উল্লেখ করে শাহিনা বলেন, “বেকার মামুনকে ইন্ডিয়া থেকে শাড়ি কাপড় এনে ব্যবসা করার জন্য টাকা দিয়েছিলাম। দু’বেলা খাবার জোগাড়ের সামর্থ ছিল না তার।”

শাহিনা আরও জানান, ভারতীয় পণ্য সাপ্লাই দেয়ার সূত্রে এলিফ্যান্ট রোডে অঞ্জন নামের এক ব্যক্তির মাধ্যমে তারেক রহমানের সাথে মামুনের পরিচয়। তারপর থেকেই ভাগ্যের চাকা ঘুরে যায় তার। ৯১ সালে তারেকের প্রভাবে শুল্ক না দিয়ে পণ্য আনা শুরু করেন। ২০০১ এর পর ব্যবসায়ী আনিসসহ তারেকের পার্টনার হিসেবে ব্লেড আমদানি থেকে শুরু করে টিভি চ্যানেল, এমন কি মন্ত্রী নিয়োগের ক্ষমতাও অর্জন করেন মামুন। রাতারাতি হয়ে যান শীর্ষ ধনীদের একজন।

শাহিনা জানান, ব্যবসায়ে সফল হওয়ার পর থেকে তিনি মামুনের দুশ্চরিত্র সম্পর্কে জানতে পারেন।

তিনি বলেন, “প্রতিদিন তার গাজীপুরের প্রাসাদ খোয়াব এ নায়িকা মডেলসহ বিভিন্ন নারীদের নিয়ে ফুর্তি করার খবর পেতাম। কিন্তু যাকে রাস্তা থেকে তুলে এনেছি সে আমাকে তালাক দিবে তা কোনদিন ভাবিনি।”

অন্যদের শাহিনা ইয়াসমিনের সুত্রে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে জানাযায় , গিয়াসউদ্দিন আল মামুন ২০০৭ সালের ৩১ জানুয়ারি দুর্নীতি, মানিলন্ডারিংসহ বিভিন্ন অভিযোগে যৌথ বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর কারাগারে থাকাকালে প্রথম স্ত্রীকে তালাক নোটিশ পাঠান। প্রাথমিকভাবে মামুন অস্বীকার করলে আদালতে আরজি জানিয়ে শাহিনা অভিযোগ করেন, চ্যানেল ওয়ানের অদিতি সেনগুপ্ত নামক মহিলার স্বামী থাকা সত্বেও মামুনের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে ওই তালাকের নোটিশ পাঠান।

পরবর্তিতে অদিতির মুখোমুখি করা হলে শাহিনাকে অকথ্যভাষায় গালাগালি করে তালাক মেনে নিতে বলেন। কারাগারে থাকাকালেই অদিতিকে বিবাহ করেন মামুন।

এরপর শাহিনা মামুনের আরও দুর্নীতির তথ্য ফাঁস করার কথা উল্লেখ করে সরকারের কাছে নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, নিকিতা নামে মামুনের আরেক স্ত্রী আছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।



« (পূর্বের সংবাদ)