মেইন ম্যেনু

তাহিরপুরে নির্বাচনী আচরন বিধি লংঘনের হিরিক, ৩৭জনকে জরিমানা

জাহাঙ্গীর আলম ভুঁইয়া, তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) : সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আচরন বিধি লংঘনের হিরিক পরেছে। একে অপরকে নিজেদের প্রভাব দেখানোর জন্য নির্বাচনী আচরন বিধি লংঘন করায় আজ দুপুরে তাহিরপুর সদরের ৫জন চেয়ারম্যান প্রার্থী কে পাঁচ হাজার,১২ সাধারন সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্যা প্রার্থীদের ৩হাজার টাকা মোট ১৭জন কে ৬১ হাজার টাকা অর্থ দন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত তাহিরপুর উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস।

এছাড়াও গত ১০ দিনে উপজেলার বাদাঘাট,উত্তর বড়দল,তাহিরপুর সদরে ইউনিয়নে নির্বাচনী আচরন বিধি লংঘনের দায়ে বর্তমান চেয়ারম্যান,স্বতন্ত্র, দু-দলের দলীয় ও দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী সহ ৩৭জন চেয়ারম্যান প্রার্থী জন কে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

উপজেলা নির্বাচন অফিস,পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাযায়,সরকার দলীয় প্রার্থী,স্বতন্ত্র প্রার্থী ও দু-দলের বিদ্রোর্হী প্রার্থীরা তাদের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা বিভিন্ন ওর্য়াডে নির্বাচনের আচরন বিধি ভংঙ্গ করে। সে কারনে তাদের প্রত্যোক কে ২হাজার থেকে ৫হাজার টাকা করে জরিমান করেন তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তাহিরপুর উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস। অর্থ দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন,তাহিরপুর সদরের সাবেক চেয়ারম্যান ও আ,লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী শামিম আখঞ্জি(নৌকা)২বার জরিমান করা হয়,দলীয় বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী ইকবাল হোসেন(চশমা)দু-বার জরিমানা করা হয়,বর্তমান চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন(বিএনপির দলীয় প্রার্থী ধানের র্শীষ),স্বপন কুমার দাস(আ,লীগের দলীয় বিদ্রোহী প্রতীক (ঢোল),বাদাঘাট ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আ,লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী নিজাম উদ্দিন(নৌকা),দলীয় বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী আপ্তাব উদ্দিন(আনারস),মোরশেদ আলম(ঘোড়া),বিএনপির দলীয় মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু সায়েম(ধানের র্শীষ)কে ৫হাজার টাকা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সোহাগ মিয়াকে ২হাজার টাকা জরিমান,বড়দল উত্তর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আ,লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামাল উদ্দিন(নৌকা)কে ৫হাজার টাকা,বিএনপির মনোনীত প্রার্থী আবুল কাশেম(ধানের শীর্ষ) কে ২হাজার টাকা জরিমানা এবং বিভিন্ন ইউনিয়নের সাধারন সদস্য প্রার্থী মুক্তার উদ্দিন,জহিরুল তালুকদার,নিজাম উদ্দিন,ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্যা প্রার্থী রাশেদা আক্তার সহ দশ জন কে ৩ হাজার টাকা করে জরিমান করেন।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন ও তাহিরপুর উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস জানান,সবাই কেই নির্বাচনের আচরন বিধি সম্পর্কে বলে দেওয়া হয়েছে তার পরও যারা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারনায় নির্বাচনী আচরন বিধি লংঘন করেছে তাদের কে জরিমানা করা হয়েছে এব্যাপারে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।