মেইন ম্যেনু

তৃতীয়বার এশিয়া কাপে মূল পর্বে আরব আমিরাত

বাছাইপর্ব উতরাতে হলে জিততেই হতো এই ম্যাচ। দাপুটে পারফরম্যান্সে সেই চ্যালেঞ্জ জিতেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। ওমানকে উড়িয়ে দিয়ে যোগ্যতা অর্জন করেছে এশিয়া কাপের মূল পর্বে খেলার।

সোমবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে এশিয়া কাপের বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে ওমানকে ৭১ রানে হারিয়েছে আমিরাত। ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৭২ রান তুলেছিল আমিরাত। ৬০ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলা ওমান শেষ পর্যন্ত করেছে ৮ উইকেটে ১০১।

বাছাইপর্বে টানা তিন জয় নিশ্চিত করল আমিরাতের তৃতীয় এশিয়া কাপ। এর আগে ২০০৪ ও ২০০৮ এশিয়া কাপ খেলেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি।

দিনের প্রথম ম্যাচে হংকংকে ৬৬ রানে হারিয়ে রান রেটে শীর্ষে উঠে এসেছিল আফগানিস্তান। প্রথম দুই ম্যাচ জয়ের পরও তাই তৃতীয় ম্যাচও জিততে হতো আমিরাতকে। আর ওমানকে জিততে হতো বড় ব্যবধানে। চাপে উজ্জীবিত হয়েছে আমিরাত, ভেঙে পড়েছে ওমান।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা আমিরাত ওপেনার রোহান মুস্তাফাকে (৫) হারায় শুরুতেই। দ্বিতীয় উইকেট ৬৫ বলে ৮৬ রানের জুটিতে দলকে শক্ত ভিত গড়ে দেন মুহাম্মদ কালিম ও মোহাম্মদ শাহজাদ। ৪০ বলে ৫০ করেন কালিম, ৩১ বলে ৩৪ শাহজাদ।

সেই ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে দলকে লড়াই করার মতো পুঁজি এনে দেন মুহাম্মদ উসমান। আগের ম্যাচেও ৪১ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলা উসমান এদিন ২২ বলে করেন ৪৬। মাঝে রানের গতি একটু কমলেও উসমানের ঝড়ে শেষ ৩ ওভার আসে ৪৪ রান!

বাছাইপর্ব উতরাতে হলে আমিরাতর ১৭২ রান ১৩.৫ ওভারে টপকাতে হতো ওমানকে। মরিয়া চেষ্টায় ফল হলো উল্টো। ৩৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকেই ছিটকে পড়ে ওমান। এক প্রান্তে টিকে ছিলেন ওপেনার জিশান মাকসুদ, আরেক প্রান্তে উইকেট পড়েছে টপাটপ। মাকসুদের ৪৬ রানে কোনো রকমে ছাড়াতে পেরেছে তারা একশ’।