মেইন ম্যেনু

তেলাপোকার উপদ্রব থেকে ঘরদোর রাখুন মুক্ত খুব সহজ ৩ টি উপায়ে

তেলাপোকা সৃষ্টির শুরু থেকেই ছিল এবং আজও রয়েছে। তেলাপোকাকে এমনিতে অনেক নিরীহ ধরণের পোকা মনে হলেও তেলাপোকা অনেক বেশি ক্ষতিকর। তেলাপোকার মূল আবাসস্থল নোংরা আবর্জনা। কিন্তু এই তেলাপোকাই রাতের বেলা নোংরা আবর্জনা থেকে উঠে আপনার পুরো ঘরময় হেঁটে বেড়ায়। হেঁটে বেড়ায় আপনার খাবার এবং হাড়ি পাতিলের উপরে যার কারণে এর গায়ে থাকা জীবাণু আমাদের সংস্পর্শে আসে। নানা রোগের উৎপত্তি এই তেলাপোকার কারণেই হয়ে থাকে। তাই ঘর থেকে তেলাপোকা দূর করা অত্যন্ত জরুরী। তাই আজকে জেনে নিন তেলাপোকার উপদ্রব একেবারে বন্ধ করার খুব সহজ কিছু উপায়।

১) চিনি ও বেকিং সোডার ব্যবহার

বেকিং সোডা তেলাপোকা একেবারেই সহ্য করতে পারে না। সমপরিমাণ চিনি ও বেকিং সোডা একসাথে মিশিয়ে ঘরের কোণে এবং তেলাপোকা আসার সম্ভাব্য স্থানে ছড়িয়ে দিন। চিনির ঘ্রাণে তেলাপোকা আকৃষ্ট হয়ে বেকিং সোডা মিশ্রিত চিনি খেয়ে মারা পড়বে তেলাপোকা। আর আপনিও ঘরকে রাখতে পারবেন তেলাপোকা মুক্ত।

২) তেজপাতার ব্যবহার

তেলাপোকা তাড়ানোর সবচাইতে সহজ ও সস্তা উপায় হচ্ছে তেজপাতা ব্যবহার করা। তেলাপোকা তেজপাতার তীব্র গন্ধ একেবারেই সহ্য করতে পারে না। তেজপাতা গুঁড়ো করে তেলাপোকা ঘরে আসার সম্ভাব্য সকল স্থানে ছিটিয়ে রাখুন, দেখবেন তেলাপোকার উপদ্রব থেকে চিরতরে মুক্তি পেয়ে যাবেন।

৩) বোরিক পাউডারের ব্যবহার

বোরিক পাউডার মূলত একধরণের অ্যাসিডিক উপাদান যা পোকামাকড়ের যন্ত্রণা কমাতে বিশেষভাবে সহায়ক। ১ টেবিল চামচ বোরিক পাউডার, ১ টেবিল চামচ কোকো পাউডার এবং ২ টেবিল চামচ ময়দা বা আটা একসাথে মিশিয়ে নিন ভালো করে। এই মিশ্রণটিও একইভাবে সকল স্থানে ছিটিয়ে রাখুন। তেলাপোকা এই মিশ্রণে আকৃষ্ট হয়ে বোরিক পাউডার খেয়ে মারা পড়বে। ২ সপ্তাহ এই পদ্ধতিটি ব্যবহার করুন একেবারে মুক্তি পাওয়ার জন্য।

মনে রাখুন জরুরী কিছু বিষয়

– ঘরবাড়ি পরিষ্কার রাখলে তেলাপোকার উপদ্রব এমনিতেই কম হবে। বিশেষ করে রাতে খাওয়ার পর তা ধুয়ে রাখুন। এতে তেলাপোকার যন্ত্রণা অনেক কমে যাবে।

– প্রতি সপ্তাহেই ঘরের কোণ বা আলমারির ভেতরের খালি বক্স বা বাক্স ধরণের জিনিস পরিষ্কার করুন।

– বাথরুম নিয়মিত ভালো টয়লেট ক্লিনার দিয়ে পরিষ্কার রাখুন এবং কিছুদিন পরপরই গরম পানি ঢালুন। এতে তেলাপোকার যন্ত্রণাও কমে যাবে।

সূত্রঃ myhealthtips