মেইন ম্যেনু

ত্বকের যত্নে কলার ব্যবহার

কলার পুষ্টিগুণ এবং এর উপকারিতার কথা তো নিশ্চয়ই আর নতুন করে কিছু বলতে হবে না। কলা বেতর থেকে যেমন আমদের দেহের বিভিন্ন উপকার করে থাকে। ঠিক তেমনে আমাদের ত্বকের বাহির থেকেও উপকার করে থেকে। তাই চুল ও ত্বকের যত্নে অনেক কিছুর সাথে আমরা কলা ব্যবহার করে থেকি। রূপচর্চার জন্য এখন থেকে পার্লারে গিয়ে আর টাকা এবং সময় অপচয় করতে হবেনা। ঘরে থাকা কিছু সাধারণ উপাদানে ফেসপ্যাক তৈরি করে নিজেই নিজের ত্বকের যত্ন নিতে পারবেন। তার মধ্যে পাকা কলা অন্যতম। পাকা কলা শুধু স্বাস্থ্যের জন্যই উপকারি নয়, ত্বকের জন্যও অনেক উপকারি। চলুন জেনে নিই কীভাবে তৈরি করবেন কলার কিছু ফেসপ্যাক।

শুষ্ক ত্বকের জন্য : অর্ধেকটা পাকা কলা চটকে তার সঙ্গে ১ চা চামচ মধু মিশিয়ে ভালো করে পেস্ট বানিয়ে নিন। ২০ থেকে ২৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

উজ্জ্বল ত্বকের জন্য : একটি পাকা কলা চটকে তার সঙ্গে ২ টেবিল চামচ লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে মুখে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

প্রাকৃতিক স্ক্রাব হিসেবে : পাকা কলার সঙ্গে চিনি মিশিয়ে মুখে ও গলায় ভালো করে ম্যাসাজ করুন। এই স্ক্রাব ত্বকের মৃত কোষগুলো সরিয়ে ফেলে ত্বককে করে তুলবে আরো উজ্জ্বল।

অ্যান্টি এজিং বা রিংকেল দূর করতে : অ্যালোভেরার রস ও পাকা কলার মিশ্রণ খুব ভালো অ্যান্টি এজিং হিসেবে কাজ করে। সপ্তাহে ৩ দিন ২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখলে অনেক উপকার পাবেন।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে : পাকা কলা চটকে চোখের চারপাশে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চোখ ধুয়ে ফেলুন। উপকার নিজেই দেখতে পাবেন।

তথ্য ও ছবি : ইন্টারনেট