মেইন ম্যেনু

থার্টি ফার্স্টে রাজধানীর যেসব রাস্তা বন্ধ

খ্রিস্টীয় নতুন বছরের প্রথম দিন (থার্টি ফাস্ট নাইট) পালন উপলক্ষে জন-নিরাপত্তার স্বার্থে রাজধানীর বেশ, কিছু এলাকায় যান এবং জন চলাচলে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ।

সোমবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে খ্রিস্টীয় নববর্ষ উপলক্ষে ডিএমপি’র নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ সম্পর্কে জানাতে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া এসব কথা জানান।

নির্দেশনা অনুযায়ী ৩১ ডিসেম্বর রাত ৮টা থেকে পরদিন ভোর ৫টা পর্যন্ত গুলশান, বনানী, ও বারিধারা এলাকায় যানবাহন প্রবেশের জন্য শুধু কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ (কাকলি ক্রসিং) ব্যবহার করা যাবে। রাত ৮টা থেকে এসব এলাকায় প্রবেশের জন্য তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকা-ফিনিক্স রোড ক্রসিং, বনানী ১১নং রোড ক্রসিং, চেয়ারম্যান বাড়ি ক্রসিং, আমতলী ক্রসিং, শুটিং ক্লাব, বাড্ডা লিংক রোড, গ্রুপ-ফোর, ডিওএইচএস বারিধারা-ইউনাইটেড হাসপাতাল ক্রসিং ও নতুন বাজার ক্রসিং ব্যবহার করা যাবে না। তবে বের হওয়ার জন্য এসব এলাকা ব্যবহার করা যাবে।

একইভাবে ৩১ ডিসেম্বর রাত ৬টা থেকে পরদিন ভোর ৫টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রবেশের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ছাড়া অন্য যে কোনো ব্যক্তি বা যানবাহন কেবল পুরনো হাইকোর্ট-দোয়েল চত্বর-শহীদ মিনার-জগন্নাথ হলের দক্ষিণ গেট-পলাশী মোড়ের রাস্তা ব্যবহার করতে পারবেন। এই এলাকায় প্রবেশের জন্য এসময় অন্য সব রাস্তা বন্ধ থাকবে।

ডিএমপি কমিশনার রাত ৮টার মধ্যে এসব এলাকার বাসিন্দাদের এলাকায় প্রত্যাবর্তনের অনুরোধ জানান। একইসঙ্গে বহিরাগতদের এসব এলাকায় রাত ৮টার পর প্রবেশ না করতে নিরুৎসাহিত করেছেন তিনি।