মেইন ম্যেনু

‘দরকার হলে বাংলাদেশীদের গুলি কর’

সুগন্ধি ব্যারন এবং অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান বদরুদ্দিন আজমল সম্প্রতি বাংলাদেশী অভিবাসীদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন। তিনি দল গঠন করার পর সুপ্রিম কোর্ট ২০০৫ সালের জুলাই মাসে একটি অভিযোগে প্রো – অভিবাসী আইন বাতিল করেছিলেন। তিনি চান বাংলাদেশী অভিবাসীদের ইস্যু দ্রুত শেষ করতে, যেন ভারতের প্রত্যেক মুসলমানের কপালে কলঙ্ক বহন করতে না হয়।

সম্প্রতি হিন্দুস্তান টাইম্‌স তার একটি সাক্ষাৎকার অনলাইনে তুলে ধরেন। যেখানে তাকে বিভিন্ন ধরণের প্রশ্ন করা হয়। সেই সাক্ষাৎকারের সম্পূর্ণ অংশ আওয়ার নিউজ বিডি’র পাঠকদের উদ্দেশ্যে তুলে ধরা হল-

প্রশ্নঃ বাংলাদেশী ইস্যুতে আপনার স্ট্যান্ড কি?
আজমলঃ ১৯৮৫ সালের আসাম একর্ডে স্পষ্টভাবে বলা আছে যে, ১৯৭১ সালের ২৪শে মার্চের পর যারা ভারতে এসেছে তারা অবৈধ তারপরও এই বিষয়টি অত্যন্ত দীর্ঘায়ীত করা হয়েছে। এরপরও সরকার কেন বাংলাদেশের সাথে সীমান্ত সিল করে দিচ্ছেন না এবং অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন না?

প্রশ্নঃ আসামের মুসলমানেরা কি এই বিষয়ের বলি হচ্ছেন?
আজমলঃ মুসলমানদের তাদের আবির্ভাবের কারণে সন্দেহের চোখে দেখা হয়। যদি বাংলাদেশীরা অবৈধভাবে বসবাস করে থাকে, তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নিন। প্রয়োজন হলে তাদের গুলি করুন, কিন্তু প্রকৃত ভারতীয় নাগরিকদের হয়রানি বন্ধ করুন।

প্রশ্নঃ কিন্তু আপনি নাকি বাংলাদেশী অভিবাসীদের পক্ষে?
আজমলঃ এসব বিজেপি ও এজিপির একটি ভিত্তিহীন অভিযোগ। অবৈধ অভিবাসীদের রক্ষার কোন প্রশ্নই আসে না।

প্রশ্নঃ আপনারা কি একটি প্রো-মুসলিম দল?
আজমলঃ কেন আমাদের কি অমুসলিম বিধায়ক নেই? আমরা ধর্ম নিরপেক্ষতে বিশ্বাসী এবং আমাদের দল গঠনও আমরা সেভাবে করেছি।

প্রশ্নঃ আপনাদের বড় কোন দলের সাথে কি গোপনে চুক্তি রয়েছে?
আজমলঃ ইসলাম ধর্ম অনুসারে, আমরা গোপন বিয়েতে বিশ্বাস করিনা। অনুরূপভাবে, আমাদের কোন দলের সাথে গোপন চুক্তিও নেই।