মেইন ম্যেনু

দশ দিনের মধ্যে পানি না এলে কর্মকর্তাদের বসিয়ে রাখা হবে

রাজধানীর নাখালপাড়া দক্ষিণ-পশ্চিম এলাকার চলমান পানির সমস্যা দশ দিনের মধ্যে সমাধান করতে না পারলে ঢাকার সব ওয়াসা কর্মকর্তাকে নাখাল পাড়ায় এনে বসিয়ে রাখা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক। আজ রোববার দুপুরে মেয়র সমস্যাগ্রস্ত এলাকায় ঘুরে ও এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে এই ঘোষণা দেন।
এ ছাড়া এই সময়ে ওয়াসাকে বিকল্প উপায়ে পানি সরবরাহ করারও নির্দেশ দেন।

বেলা দুইটার দিকে নাখালপাড়ার লুকাস মোড়ে আনিসুল হক এলে এলাকার বাসিন্দারা তাঁকে ঘিরে ধরে সমস্যার কথা জানান। এলাকাবাসী বলেন, তাঁদের এলাকায় ওয়াসার খনন কাজ চলার জন্য নাখালপাড়ার ছাপড়া মসজিদ থেকে ঢাল, প্রেমনগর, ৬ থেকে ৮ ও ১০ থেকে ১২ নম্বর গলিতে গত দুই মাস ধরে পানি পাচ্ছেন না। তাঁরা সমাধানের জন্য অনেকবার ওয়াসা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বললেও সমস্যার সমাধান হয়নি। সমস্যার কথা শুনে আনিসুল হক ওয়াসার প্রধান প্রকৌশলী আবুল কাশেমসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের কাছে জানতে চান এই সমস্যা সমাধানের জন্য কত দিন লাগবে? জবাবে ওয়াসার প্রধান প্রকৌশলী জানান, ১০ দিনের মধ্যে সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। সে পর্যন্ত এলাকাবাসীকে ধৈর্য ধরার অনুরোধ করেন মেয়র।
নাখালপড়ার সমস্যাগ্রস্ত এলাকার বাসিন্দা মো. নাসির উদ্দিন বলেন, গত দুই মাস ধরে তাঁদের এলাকায় পানি নেই। তাঁরা অন্য জায়গা থেকে পানি এনে কাজ সারছেন। তিনি বলেন, ‘রোজার মধ্যে কি যে কষ্ট আমাদের তা ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। অথচ ওয়াসার কাজের ধীর গতি।’ একই এলাকার বাসিন্দা মাহমুদা শিকদারও দুই মাস ধরে পানি না থাকার কষ্টের কথা জানান মেয়রকে।

আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি গত দুই মাসে সাত বার এই এলাকার সমস্যা দেখতে এসেছি। দ্রুত যেন সমস্যার সমাধান হয় সে বিষয়ে যা যা করা দরকার করছি।’ ওয়াসার প্রধান প্রকৌশলী ও অন্যান্য কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের যে সময় দিচ্ছি তার মধ্যে যদি কাজ শেষ করতে না পারেন তাহলে কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ওয়াসার সব কর্মকর্তাদের এখানে এনে বসিয়ে রাখা হবে।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওয়াসার প্রধান প্রকৌশলী বলেন, ‘ওয়াসা এখানকার খননকাজে বিভিন্ন বাধার সম্মুখীন হয় ফলে কাজ ধীর গতিতে হয়েছে। মেয়রের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেওয়ার পর সমস্যাগুলো থাকবে না। আশা করি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই কাজ শেষ করতে পারব।’