মেইন ম্যেনু

দাউদকান্দি পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে সাধারণ মানুষের ভাবনা

নির্বাচন কমিশন কর্তৃক সম্প্রতি ঘোষণা দেওয়া হয় যে, আগামি ৩০ ডিসেম্বর সারা দেশে ২৩৫টি পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই দাউদকান্দি পৌরসভায় নির্বাচনী তুমুল হাওয়া বইছে। এখানে ৯টি ওয়ার্ড রয়েছে। রয়েছে ২৬টি গ্রাম। পৌরসভা থেকে আরাম্ভ করে ওয়ার্ড ছাড়িয়ে এখন গ্রামের ঘরে ঘরে নতুন পৌর মেয়র কে হবেন, এই নিয়ে রয়েছে নানান ভাবনা।

স্থানীয়দের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে ১৯৯৫ সালের ১ অক্টোবর দাউদকান্দি পৌরসভা গঠিত হয়। দাউদকান্দি পৌরসভা ১২.১৭বর্গমিটার বিস্তৃত। রয়েছে ২৬টি গ্রাম; ১৯টি মৌজা; ৯টি ওয়ার্ড। মোট জনসংখ্যা ৪৬ হাজার ৬ ’শ ৩১জন। দাউদকান্দি পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ২৬ হাজার ২’শ ৯জন। পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ১৩ হাজার ২’শ ৩৭ ও নারী ভোটারের সংখ্যা ১৩ হাজার ১’শ ৭২জন। ২০০২ সালে দাউদকান্দি পৌরসভাকে ”খ” শ্রেণীতে অন্তর্ভূক্ত করা হয়।

কিন্তু এতে করে দাউদকান্দি পৌরসভার চলমান সমস্যাগুলো তো সমাধান হয়ইনি বরং সমস্যা আর সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়ে এই ২য় শ্রেণির পৌরসভাটি। চারদিকে বেহাল দশায় পর্যবসিত হয় আমাদের প্রিয় দাউদকান্দি পৌরসভা।

প্রধান প্রধান সড়কগুলোর অবস্থা নাজুকাকার ধারণ করে। এমন এক কঠিন অবস্থায় উপনিত হয় এই পৌরসভাটি-যেন এর কোন অভিভাবকই নেই। এই অভিভাবকহীন পৌরসভা নিয়ে এখন মানুষের মনে দেখা দিয়েছে নানা রকম প্রশ্ন।

মানুষজন মনে করছে, যোগ্যতা ও দক্ষতার মানদ- বিচার করেই একজন পৌরমেয়র নির্বাচিত করবে ভোটাররা। তাদের দাবি, এমন একজন পৌরমেয়র নির্বাচিত হোক, যার মাধ্যমে দূর হবে দাউদকান্দি পৌরসভার সকল মানুষের দুর্ভোগ; এই পৌরবাসী উপহার পাবে মাদক, দুর্নীতি, অন্যায়-অনাচারমুক্ত, সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন একটি উন্নত পরিবেশ।