মেইন ম্যেনু

দারুণ জয়ে শীর্ষে মাহমুদউল্লাহর খুলনা

অন্য দলগুলোর তুলনায় কিছুটা দুর্বলই মনে হয়েছিল খুলনা টাইটানসকে। কিন্তু বিপিএলের এবারের আসরে মাঝামাঝি পর্যাযে এসে সেই খুলনাই চলে গেছে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে। আজ রোববার মুশফিকের বরিশাল বুলসকে ২২ রানে হারিয়ে শীর্ষস্থান দখল করেছে মাহমুদউল্লাহর খুলনা। ব্যাটে-বলে দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়ে দলকে সামনে থেকেই নেতৃত্ব দিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। ১৫২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে তিন বল বাকি থাকতেই ১২৯ রানে থেমে গেছে বরিশালের ইনিংস।

খুলনার বোলারদের ভালো বোলিংয়ের মুখে শুরু থেকেই রান সংগ্রহ করতে বেশ কষ্ট করতে হয়েছে বরিশালের ব্যাটসম্যানদের। সেই সঙ্গে উইকেটও হারিয়েছে নিয়মিত বিরতিতে। প্রথম চার ওভারের মধ্যেই সাজঘরে ফিরেছিলেন দুই ওপেনার ফজল আহমেদ ও জীবন মেন্ডিস (২১)। প্রথম ১০ ওভারে বরিশালের স্কোরবোর্ডে জমা হয়েছিল মাত্র ৫১ রান। চতুর্থ উইকেটে ৪৩ রানের জুটি গড়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা চালিয়েছিলেন বরিশালের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও শাহরিয়ার নাফীস। কিন্তু ১৫তম ওভারে নাফীস ও থিসারা পেরেরাকে আউট করে বরিশালকে বিপাকে ফেলে দেন মোশাররফ হোসেন। পরের ওভারে ৩৫ রান করে মুশফিকও সাজঘরের পথ ধরলে নিশ্চিতই হয়ে যায় বরিশালের হার। শেষপর্যায়ে রায়াদ এমরিটের ১৪ রানের ইনিংসটি তাদের হারের ব্যবধানই শুধু কিছুটা কমাতে পেরেছে। নাফীস করেছেন ২৮ রান।

খুলনার পক্ষে দারুণ বোলিং করেছেন ডানহাতি পেসার শফিউল ইসলাম। ৩.৩ ওভার বল করে ১৭ রানের বিনিময়ে নিয়েছেন চারটি উইকেট। দুটি করে উইকেট পেয়েছেন জুনায়েদ খান ও মোশাররফ। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ব্যাট হাতে ৪৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলার পর বল হাতেও নিয়েছেন একটি উইকেট।

বিপিএলের ছয় ম্যাচ শেষে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে খুলনা টাইটানস। ৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস। ছয় ম্যাচে বরিশালের সংগ্রহ ৬ পয়েন্ট। তারা আছে পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ স্থানে।