মেইন ম্যেনু

দিনাজপুরের বিরল ডুংডুংগি সীমান্তে গ্রামবাসী’র সাথে বিজিবি’র সংঘর্ষ

দিনাজপুরের বিরল উপজেলার ডুংডুংগি সীমান্তে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসী’র সাথে বিজিবি’র সংঘর্ষ হয়েছে। এতে বিজিবি’র দু’সদস্যসহ আহত হয়েছে কমপক্ষে ৫জন। এ সময় বিজিবি’র কাছ থেকে একটি রাইফেল ছিনিয়ে নেয় গ্রামবাসী।

পরে স্থানীয় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান এবং ইউপি সদস্য দীপ চাঁনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়েছে। ছিনিয়ে নেয়া রাইফেলটি ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ জামাল হোসেন জানিয়েছেন, পরিস্থিতি এখন শান্ত। গ্রামবাসীর সাথে আমাদের কোন বিরোধ নেই।

রাজধানী ঢাকাতে গার্মেন্স এ কাজ করা কয়েকজন উৎশৃংখল যুবক ঈদে বাড়িতে বেড়াতে এসে এই অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। সীমান্তবর্তী এলাকায় কোন মাইক বা বাজনা বাজাতে হলে প্রশাসনের অনুমনি লাগে। উচ্চস্বরে মাইকিং বা বাজনার কারণে সীমান্তে কোন অঘটন ঘটলে বা ফায়ার হলে তার শব্দ পাওয়া যায়না।

অথচ অনুমতি ছাড়াই সীমান্ত পিলার ৩২৫ এর এক গজের মধ্যেই তারা রাতে সাউন্ড বক্স এ উচ্চ স্বরে গান বাজিয়েছে। বিজিবি জওয়ানরা তাদের বাধা দিলেও তারা শুনে নাই। আজ শনিবার সকালে আবারও তারা একইভাবে সাউন্ড বক্স এ উচ্চ স্বরে গান বাজাতে থাকে। এতে বিজিবি জরয়ানরা বাাঁধা দিলে তাদের সাথে সকাল ৯টায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে।

এতে বিজিবি সদস্য কামাল ও মিজান আহত হয়। তারা ছিনিয়ে নেয় একটি রাইফেল। পরে স্থানীয় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়েছে। ছিনিয়ে নেয়া রাইফেলটি ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যের মাধ্যমে তারা ফিরিয়ে দিয়েছে।

এদিকে গুরুত্বর আহত গ্রামের যুবক জাকির হোসেন (১৮) মোহাম্মদ ছানি (২২) দিনাজপুর মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।