মেইন ম্যেনু

দিনাজপুরে ইতালিয়কে হত্যাচেষ্টা: আটক ২ শিবির নেতা শ্যোন অ্যারেস্ট

দিনাজপুরে ইতালিয় ধর্মযাজক ডা. পিয়েরো পারলারিকে হত্যা চেষ্টার মামলায় রংপুরে আটক ২ শিবির নেতাকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে আগামী রোববার দিনাজপুর আদালতে রিমান্ড শুনানির জন্য হাজির করা হবে।

২৯ নভেম্বর রংপুর মহানগর ছাত্রশিবিরের সেক্রেটারি রাজিবুর রহমান পলাশ (২৮) ও ছাত্রবিষয়ক সেক্রেটারি আসাদুজ্জামান মিলন ওরফে শিমুলকে (২৮) নাশকতা মামলার পলাতক আসামি হিসেবে রংপুর কোতোয়ালি পুলিশ আটক করে।

আটক পলাশ দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর উপজেলার তেতুলিয়াগ্রামের আব্দুস সামাদ ও শিমুল রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার ক্ষুদ্রমুরাদপুর গ্রামের মো. লুৎফর রহমানের ছেলে।

দিনাজপুরের ডিবি ওসি মো. রেদওয়ানুর রহিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ডিবির এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বজলুর রশিদ রংপুরে পুলিশের হাতে আটক ছাত্রশিবিরের ২ নেতাকে শ্যোন অ্যারেস্ট করার আবেদন করেছেন আদালতে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে দিনাজপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এফএম আহসানুল হকের আদালতে পলাশ ও শিমুলকে ইতালীয় নাগরিক হত্যা চেষ্টা মামলার আসামি হিসেবে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আদালত রোববার শিবিরের ২ নেতাকে আদালতে হাজিরের আদেশ দিয়ে রিমান্ড শুনানির তারিখ নির্ধারণ করেন।

উল্লেখ্য, দিনাজপুর মিশনে কর্মরত ছিলেন ডা. পিয়েরো পারোলারির। তিনি কসবা ভিনসেন্ট হাসপাতাল ছাড়াও দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগীদের চিকিৎসাসেবা দিতেন। বুধবার সকাল পৌনে ৮টায় সাইকেলে যাওয়ার সময় বিআরটিসি ডিপোর সামনের সড়কে দুর্বৃত্তের গুলিতে আহত হন ফাদার পিয়েরো পারোলারির।

হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি হিসেবে দিনাজপুর জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি অ্যাড. মাহবুবুর রহমান ভুট্টোকে ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করে ২ দফায় ৩ দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই বজলুর রশিদ জানান, জামায়াতের সেক্রেটারির কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। যার ভিত্তিতে তদন্তকাজ চালানো হচ্ছে।