মেইন ম্যেনু

দিনাজপুরে সার্বজনীন শারদীয় দূর্গোৎসব সুষ্ঠুভাবে উদ্যাপনের লক্ষে প্রস্তুতি সভা

আসন্ন সার্বজনীন শারদীয় দূর্গোৎসব সুষ্ঠুভাবে উদ্যাপনের লক্ষে দিনাজপুরে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে মঙ্গলবার সকালে এ সভায় সভাপতিত্ব করেন,দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মো.মীর খায়রুল আলম।

সভায় দিনাজপুর জেলা পুলিশ সুপার মো, রুহুল আমিন,দিনাজপুর চেস্বারের সভাপতি মোছাদ্দেক হুসাইন,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো.আবু রায়হান মিয়া, দিনাজপুর দুর্গাপূজা সমন্বয় কমিটির সভাপতি পরিমল চক্রবর্তী তপন, বাংলাদেশ পুজা উদ্যাপন পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সদস্য সচিব বিধান চক্রবর্তী বাসু দিনাজপুর শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি অনোয়ারুল ইসলাম ও চ্যানেল আই’র স্টাফ রিপোর্টার শাহ্ আলম শাহী সহ প্রশাসন ও হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

সভায় জানানো হয়, দিনাজপুর জেলার ১৩টি উপজেলা ও ৯টি পৌরসভায় এবার এক হাজার ১’শ ৮১টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসবের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

বক্তারা বলেন, শারদীয় দুর্গাপুজা উৎসব চলাকালে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে শহরে অবৈধ ও রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ রাখা এবং একই মোটরসাইকেল ২ জনের অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন প্রতিহত করতে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানানো হয়। পুজা চলাকালীন সময়ে অপরিচিত ও সন্দেহভাজন লোকজন যাতে পুজা মন্ডপে ঘুরাফেরা ও প্রবেশ করতে না পারে সে ব্যাপারে দৃষ্টি দেয়ার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়।

জেলা প্রশাসক তার বক্তব্যে বলেন, পুজা কমিটিকে পুজা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সর্বক্ষনিক পুজা মন্ডপ এলাকায় নিজস্ব তদারকি ও স্বেচ্ছাসেবী বাহিনী নিয়োজিত করতে হবে। শুধু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপর নির্ভর করলেই চলবে না।পুজা মন্ডপে অগ্নিনির্বাড়ন যন্ত্র রাখতে হবে। মহিলা ও পুরুষদের পুজা মন্ডপে প্রবেশের জন্য পৃথক ব্যবস্থা করতে হবে। সব মিলিয়ে সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণভাবে পুজা অনুষ্ঠান সম্পন্ন করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি আশ্বাষ দেন।

পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন জানান, জেলায় সম্ভাব্য এক হাজার ১’শ ৮১টি শারদীয় দুর্গা পূজা মন্ডপের মধ্যে ৩’শ দুর্গাপূজা মন্ডপকে ঝুকিপূর্ণ ও ২’শ পুজা মন্ডপ অধিক ঝুকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব পুজা মন্ডপে আনসার, পুলিশের পাশাপাশি র্যা ব সদস্যরা নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে।