মেইন ম্যেনু

দিনে দুপুরে প্যান্ট খুলে রাস্তায় তরুণী; টের পেল না কেউ! (ভিডিও)

হংকংয়ের ব্যস্ত সড়কে শুধু একটি টি-শার্ট পরে ঘুরে বেড়িয়েছেন এক তরুণী। টি-শার্টের দৈর্ঘ্যও কোমর অবধি। এর নিচের আর কিছু পরেননি তিনি। কিন্তু তারপরও গোটা শহরের কেউ বুঝতেই পারেনি যে তিনি প্যান্ট ছাড়াই ঘুরছেন!

অসম্ভব শোনালেও সত্যিই এমন ঘটনা ঘটেছে। ঘাড়ে সোনালি ব্যাকপ্যাক, পনিটেল করে চুল বাঁধা, সাদা রঙের টি-শার্ট আর কালো বুট পরে শহরের ব্যস্ত সব রাস্তা দিয়ে ঘুরে বেড়ালেন একজন স্বর্ণকেশি মডেল। অথচ কেউ বুঝতেই পারেনি যে তাঁর পরনে নেই কোনো প্যান্ট। কারণ প্যান্ট না পরলেও জিনসের প্যান্টের আদলে কোমর থেকে শরীরের নীচের অংশ রং করেছিলেন তিনি। দেখে মনে হচ্ছিল স্কিনটাইট জিনসের প্যান্ট পরে আছেন বুঝি।

একটি ভিডিওতে দেখা যায়, এই অর্ধনগ্ন অবস্থায় ওই তরুণী একটি ব্যস্ত বিপণিবিতানের ভেতর দিয়ে হেঁটে যান, সবার সাথে এসকেলেটরে ওঠেন, এমনকি ভীষণ ব্যস্ত রাস্তাও পার হন। সেই পর্যন্ত কেউ কিছু বুঝেই উঠতে পারেনি।

যখন তার কাঁধ থেকে ব্যাগপ্যাকটি সরালেন তখন সেখানে লেখা দেখা গেল, ‘কোনো প্যান্ট না পরাই সেরা প্যান্ট।’

চিত্রশিল্পী সান্দ্রা বাক্কের খুব যত্নের সাথে তরুণীর শরীরে এই জিনসের প্যান্ট এঁকেছেন। প্যান্টের ভাঁজ, পকেট থেকে শুরু করে কোনো কিছুই বাদ দেননি তিনি। কয়েক ধরনের নীল রং মিলিয়ে জিনসের আসল রং ফুটিয়ে তুলেছেন সান্দ্রা। মোটকথা সত্যিকারের জিনসের প্যান্টের মতো দেখাতে কোনো ত্রুটিই রাখেননি তিনি।

আর যার ফলে গোটা একটা শহরের কোনো মানুষই ধরতে পারেনি যে, দিনে দুপুরে অর্ধনগ্ন হয়ে একজন তরুণী ঘুরে বেড়াচ্ছে।

ভিডিও:



« (পূর্বের সংবাদ)