মেইন ম্যেনু

দিল্লিতে ফের চলন্ত গাড়িতে গণধর্ষণ

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির পূর্বের শহর আনন্দ বিহারে চলন্ত গাড়িতে ফের একজন নারী গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাত ১০টার দিকে আনন্দ বিহারের একটি শপিং মলের পাশে ওই নারী কিছু খাবার কিনতে গেলে এ ঘটনা ঘটে। ওই নারীর অভিযোগ, চারজন পুরুষ তাকে জোর করে একটি গাড়িতে তুলে নেন। চলন্ত গাড়িতেই তাকে গণধর্ষণ করা হয়। ধর্ষণে বাধা দিতে গেলে তাকে ব্যাপক মারধরও করা হয়।

দেশটির প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ধর্ষকরা ওই নারীকে মধু বিহারের কাকদি মোদের এক নির্জন এলাকায় নামিয়ে দিয়ে চলে যায়। ওই নারীর বিবৃতির ওপর ভিত্তি করে একটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

পুলিশের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, অভিযুক্তদের শনাক্ত ও গাড়ি চিহ্নিত করা হয়েছে। আমরা এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিতের চেষ্টা করছি। ধর্ষণের শিকার ওই নারীর অভিযোগ অনুযায়ী শিগগিরই অভিযুক্তদের আটক করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে একটি চলন্ত বাসে গণধর্ষণের শিকার হয়ে নিহত হন ২৩ বছর বয়সী প্যারামেডিকেল ছাত্রী জ্যোতি সিং। এই অপরাধের ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত।