মেইন ম্যেনু

দীর্ঘসময় বসে থাকা যেভাবে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছে আপনাকে!

সারা দিন-রাত মিলে ২৪ ঘন্টায় ঠিক কয় ঘন্টা জেগে থাকেন আপনি? কী করেন এই সময়ে? ঘরের কাজ, অফিসের কাজ, বাইরের টুকিটাকি কাজ- নিশ্চয় সবমিলিয়ে এতগুলো কাজের ফিরিস্তি দেবেন এখন? কিন্তু সেটার আগে একবার হিসেব করে দেখুন তো প্রতিদিন মোট কতক্ষণ চেয়ারে বসে থাকা হয় আপনার? যদি পরিমাণটা বেশি হয় তাহলে আপনার জন্যেই রয়েছে একটি মারাত্মক দুঃসংবাদ। আর সেটি হচ্ছে এই যে, চেয়ারে বসে দিনের বেশিরভাগ সময় কাটানোটা আমাদেরকে কেবল আরামই দেয়না, সাহায্য করে নানারকম শারিরীক ঝামেলা থেকে শুরু করে মৃত্যু পর্যন্ত এগিয়ে যেতেও। কী করে?

দি এক্সপার্টসের এক প্রতিবেদন অনুসারে, দীর্ঘসময় ধরে বসে থাকলে মানুষের শরীরে বেশকিছু ঝামেলা দেখা যেতে পারে। উদাহরনস্বরুপ-

১. হৃদপিন্ডের অসুখ

দীর্ঘসময় বসে থাকলে মাংসপেশীর নড়াচড়া কম হয় এবং ফ্যাট পোড়েনা। এছাড়াও রক্ত সঞ্চালনেও বেশ ঝামেলা তৈরি করে এটি। ফলে উচ্চ রক্তচাপ আর কোলেস্টরল বৃদ্ধির মতন ব্যাপার ঘটতে পারে এক্ষেত্রে যেটি কিনা কোনভাবেই হৃদপিন্ডের জন্যে ভালো কিছু নয়। দীর্ঘসময় বসে থাকেন এমন মানুষের অন্যদের চাইতে বেশি কার্ডিয়োভাসকুলার সংক্রান্ত রোগ-ব্যাধি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে বলে জানা যায়।

২. ডায়াবেটিস

আমাদের শরীরের অগ্ন্যাশয় শরীরের যতটা সম্ভব প্রয়োজনীয় ইনসুলিন উত্পন্ন করার চেষ্টা করে। তবে অতিরিক্ত সময় ধরে বসে থাকলে এই অগ্ন্যাশয়ই স্বাভাবিকের চাইতে অতিরিক্ত মাত্রার ইনসুলিন তৈরি করে। ফলে সেটা আমাদেরকে নিয়ে যায় ডায়াবেটিস থেকে শুরু করে আরো নানারকম জটিল রোগের দিকে।

৩. ক্যান্সার

গবেষকদের মতে, অত্যাধিক সময় বসে থাকলে সেটা আমাদের শরীরে ক্যান্সার কোষ জন্ম নেওয়ার ক্ষেত্রে সাহায্য করে। আর এক্ষেত্রে সবচাইতে বেশি এগিয়ে থাকে উদর, বক্ষ আর কোলন ক্যান্সার। অতিরিক্ত ইনসুলিন উত্পন্ন হলে কোষের আকৃতি বেড়ে যায়। ফলে সেখান থেকেও কিছু ঝামেলা সৃষ্টি হয়। যা কিনা ক্যান্সারকে ত্বরান্বিত করে।

৪. মাংসপেশির সমস্যা

অতিরিক্ত সময় বসে থাকলে খুব স্বাভাবিকভাবেই আপনার শরীরের মাংসপেশী কোন কাজ করবেনা আর ঘন্টার পর ঘন্টা কোনরকম নড়াচড়া ছাড়াই পড়ে থাকবে। এক্ষেত্রে বেম কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। প্রথমত, এভাবে এক স্থানে অনেকক্ষণ নড়াচড়া ছাড়া বসে থাকার ফলে আপনার পশ্চাত্ অংশে কিছু ত্বক ও চামড়া সংক্রান্ত সমস্যা ও মাংসপেশীর সংকুচিত হয়ে যাওয়ার মতন ঝামেলা ঘটতে পারে। তাছাড়া স্বাভাবিক নড়াচড়া না করার ফলে একটা সময় মাংসপেশী বেশ দূর্বল ও স্বাভাবিক চলত্ শক্তিহীনও হয়ে যেতে পারে।

৫. পায়ের সমস্যা

বেশি সময় কোন গতি ছাড়া পা এক স্থানে রেখে দিলে সারা শরীরের সাথে পায়ের রক্ত সঞ্চালনের বেশ ঝামেলা সৃষ্টি হয়। ফলে একটা সময় প্যারালাইসিস, ঝিঁঝিঁ ধরা সহ নানারকম সমস্যা দেখা দিতে পারে। এছাড়া এটা সত্যি যে, পায়ের গাড়কে শক্ত ও মজবুত করার জন্যে দরকার পড়ে সেটার অনুশীলনের। কিন্তু বেশিরভাগ সময় স্থিরভাবে কোন কাজ ছাড়া থাকলে পায়ের হাড় নাজুক হয়ে পড়ে।

৬. অন্যান্য…

এসব নানাবিধ সমস্যা ছাড়াও মস্তিষ্কে ক্ষতিকর প্রভাব রাখতে পারে স্থিরভাবে আপনার এই দিনের বেশিরভাগ সময বসে থাকা। ঘাড়ে ব্যাথা, কাঁধে সমস্যা, মেরুদন্ডের হাড়ে সমস্যা- এ ধরনের ব্যাপারগুলো তো অনেক বেশিই স্বাভাবিক হয়ে ওঠে এই ক্ষেত্রে।

ভাবছেন, তা হলে কি বসাই যাবেনা এখন থেকে আর? না! তা কেন? তবে বসার মাঝে একটু একটু করে নিজেকে সমসয় দিন। একটু উঠে হাঁটাহাঁটি করুন, ব্যায়াম করুন। আর বসতে গেলেও নিজের মেরুদন্ডকে সোজা রেখে, হাতকে কনুই বরাবর সোজা রেখে বসুন। যাতে করে পরবর্তীতে ঝামেলা না হয়।