মেইন ম্যেনু

দুই দিন আগেই নিজামীর রিভিউ আবেদন

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী আপিল বিভাগের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) আবেদন করেছেন।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় নিজামীর পক্ষে তার ছেলে ব্যারিস্টার নাজীব মোমেন আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদন জমা দেন। ৭০ পৃষ্ঠার মূল রিভিউর আবেদনের সঙ্গে মোট ২২৯ পৃষ্ঠার নথি পত্রে নিজামীর দণ্ড থেকে খালাস চেয়ে ৪৬টি (গ্রাউন্ড) যুক্তি তুলে ধরা হয়েছে।

আবেদন জমা দেয়ার পর ব্যারিস্টার নাজীব মোমেন বলেন, রায় প্রকাশের পর নিয়ম অনুযায়ী ১৫ দিনের মধ্যে রিভিউ আবেদন করতে হয়। সে হিসেবে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আমাদের সময় ছিল। কিন্তু আমরা আগেই রিভিউ আবেদন করেছি। আশা করি, সর্বোচ্চ আদালত রায় পুনর্বিবেচনা করে ন্যায়বিচার করবেন।

তিনি আরও বলেন, রিভিউ আবেদনে অ্যাডভোকেট অন রেকর্ড হলেন, আইনজীবী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন তুহিন। রিভিউ শুনানি করবেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন ও এসএম শাহজাহান। তাদের সহযোগিতায় থাকবেন ব্যারিস্টার নাজিব মোমেন ও এহসান এ সিদ্দিকী।

আজ দুপুর ১২টায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে নিজামীর আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে নাজীব জানান।

নিয়ম অনুযায়ী, রিভিউ নিষ্পত্তির আগে দণ্ড কার্যকর করা যাবে না। আর রিভিউ খারিজ হয়ে গেলে সেই রায়ের অনুলিপি কারাগারে যাবে এবং কারা কর্তৃপক্ষ সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আসামির ফাঁসি কার্যকর করবে।

প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার বিচারপতির স্বাক্ষরের পর গত ১৫ মার্চ নিজামীর রায় প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখা। রায় প্রকাশের দিনই নিজামীর মৃত্যু পরোয়ানা জারি করে ট্রাইব্যুনাল। পরদিন বুধবার সকালে এই পরোয়ানা কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছানোর পর নিজামীকে তা পড়ে শোনানো হয়।

মৃত্যু পরোয়ানা শোনার পর আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করে রিভিউর সিদ্ধান্ত নেয় মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের এই শীর্ষ নেতা। বুদ্ধিজীবী হত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দোষী সাব্যস্ত করে ২০১৪ সালের ২৯ অক্টোবর নিজামীকে মৃত্যুদণ্ড দেয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১।

ট্রাইব্যুনালের ওই রায় বাতিল ও তাকে বেকসুর খালাস দেয়ার আবেদন জানিয়ে ওই বছরের ২৩ নভেম্বর আপিল করেন নিজামী। এরপর গত ৬ জানুয়ারি আপিলেও নিজামীর মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখা হয়।

রায় ঘোষণার প্রায় আড়াই মাস পর ১৫ মার্চ পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করে আপিল বিভাগ। এই রায়ের বিরুদ্ধে আজ মঙ্গলবার রিভিউয়ের (পুনর্বিবেচনা) আবেদন করেন নিজামী।